Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, মঙ্গলবার, ১২ নভেম্বর, ২০১৯ , ২৮ কার্তিক ১৪২৬

গড় রেটিং: 2.9/5 (47 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০১-২৪-২০১৩

ইতালিতে জামায়াতের ষড়যন্ত্র এবং আমাদের করণীয় শীর্ষক বৈঠক


	ইতালিতে জামায়াতের ষড়যন্ত্র এবং আমাদের করণীয় শীর্ষক বৈঠক

রোম, ২৪ জানুয়ারি- একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির ২১ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে ২৩ জানুয়ারী ২০১৩ রোমের সেন্তসেল্লে বাংলা পাঠশালায় জামায়াতের ষড়যন্ত এবং আমাদের করণীয় শীর্ষক এক গোল টেবিল বৈঠকের আয়োজন করে সংগঠনটির ইতালী শাখা। জনাব হাফিজুর রহমান মিতুর সভাপতিত্বে এবং রাজু আহমেদ এর সঞ্চালায়নে বৈঠকে আরো উপস্থিত ছিলেন ইতালী আওয়ামীলীগ নেতা আলমগীর হোসেন, কমিউনিষ্ট নেতা লিয়াকত আলী মুকুল, ইতালীর সাবেক যুবলীগ সভাপতি আতিয়ার রসুল কিটন, বাংলা প্রেস কাব ইতালীর সভাপতি খান রিপন, যুব প্রতিনিধী ফয়জুল্লাহ মজুমদার এবং বিশিষ্ঠ ব্যবসায়ী মাসুম মিয়া।

একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটি ইতালী শাখার সভাপতি হাফিজুর রহমান মিতু তার বক্তব্যে নির্মূল কমিটির ২১তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে আজকের এই বৈঠকে উপস্থিত সবাইকে ধন্যবাদ জানান। তিনি নির্মূল কমিটির প্রতিষ্ঠাতা শহীদ জননী জাহানারা ঈমাম সহ সকল সহযোদ্ধাদের স্বরন করেন যারা কালের আবর্তনে আমাদের ছেড়ে না ফেরার দেশে চলে গেছেন।
বিবিসি, রয়টার সহ যে সমস্ত আর্ন্তজাতীক সংবাদ মাধ্যমে বাচ্চু রাজাকারের ফাঁসির রায় এবং মহান মুক্তিযুদ্ধের শহীদদের সংখ্যা নিয়ে বিরুপ মন্তব্যের তীব্র নিন্দা জানান। তিনি বলেন স্বাধীনতা বিরোধীদের হাজার কোটি টাকার বিদেশী লবিষ্ট নিয়োগের যে খবর শুনে আসছিলাম তা আজ পরিস্কার হয়েছে।
 
বাচ্চু রাজাকার ইউরোপের কোন দেশে যেন রাজনৈতিক আশ্রয় নিতে না পারে সে ব্যপারে সজাগ থাকার জন্য সত্যিকারের দেশপ্রেমী সকল প্রবাসী বাঙ্গালীদের প্রতি বিণীত আহবান জানান।
 
ইতালী আওয়ামীলীগ নেতা আলমগীর হোসেন তার বক্তব্যে ইতালী নির্মূল কমিটির আয়োজনে গোলটেবিল বৈঠকের জন্য ধন্যবাদ দেন এবং সেই সাথে গনপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধান মন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ জানিয়ে চিহ্নিত যুদ্ধপরাধীদের বিচার কার্য সরকারের এই মেয়াদেই শেষ করার আহবান জানান। এবং ইতালী নির্মূল কমিটির ভবিষ্যত সকল কর্মকান্ডে সার্বিক সহযোগীতার আশ্বাস দেন।
 
কমিউনিষ্ট নেতা লিয়াকত আলী মুকুল বলেন, জামায়াতীরা ধর্মকে রাজনৈতিক ফায়দা হাসিলের জন্য হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করে। ব্রিটিশ বিরোধী আন্দোলন হতে বাংলাদেশের মুক্তি যুদ্ধ পর্যন্ত, সব সময়ই জামাতীরা মুক্তিকামী জনতার বিপক্ষে অবস্থান গ্রহন করে। তিনি আর্ন্তজাতীক ট্রাইব্যুনালের কার্যক্রমকে দ্রুত করার আহবান জানান।
 
ইতালীর সাবেক যুবলীগ সভাপতি আতিয়ার রসুল কিটন বলেন, ইতালীতে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী সকল রাজনৈতিক এবং সামাজিক/মানবাধীকার সংগঠন গুলিকে স্বাধীনতা বিরোধীদের বিরুদ্ধে এক সাথে কাজ করার উদ্যোগ নিতে একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটি ইতালী শাখাকে আহবান জানান।
 
বাংলা প্রেস কাব ইতালীর সভাপতি খান রিপন তার বক্তব্যে ইতালী নির্মূল কমিটিকে এলাকা ভিত্তিক বিভিন্ন কর্মসূচির মাধ্যমে তৃনমূল পর্যায়ে মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস তুলে ধরে এবং স্বাধীনতা বিরোধীদের আর্ন্তজাতীক ট্রাইব্যুনাল বিরোধী অপপ্রচার সম্পর্কে সচেতনতা গড়ে তোলার আহাবান জানান। 
 
যুব প্রতিনিধী ফয়জুল্লাহ মজুমদার বলেন তার নিজ গ্রামে এনায়েত উল্লাহ মুক্তিযুদ্ধের সময় ছাত্রসংঘের (বর্তমান ছাত্র শিবির) রাজনীতি কর্মী হিসেবে পাক হানাদার বাহিনীর সাথে মিলে সকল অপকর্ম করে বর্তমানে তিনি নারায়নগঞ্জে এক মসজিদের ঈমাম হয়ে মাওলানা এনায়েত উল্লাহ সেজে বসে আছে।
 
বিশিষ্ঠ ব্যবসায়ী মাসুম মিয়া ইলেকট্রনিক এবং প্রিন্ট মিডিয়ার মাধ্যমে স্বাধীনতা বিরোধীদের অপপ্রচারের বিরুদ্ধে আরো সক্রিয় হওয়ার আহবান জানান।
 
গোল টেবিল বৈঠকের সঞ্চালক ও একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটি ইতালী শাখার সাধারন সম্পাদক রাজু আহমেদ বলেন ঐক্যের কোন বিকল্প নেই। স্বাধীনতা বিরোধীরা নামে বেনামে আজ ঐক্যবদ্ধ। সময় হয়েছে আমাদের ঐক্যবদ্ধ ওদের সকল ষড়যন্ত্র প্রতিহত করা।
 

ইতালি

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে