Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, বুধবার, ৮ এপ্রিল, ২০২০ , ২৫ চৈত্র ১৪২৬

গড় রেটিং: 2.8/5 (38 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)


আপডেট : ১১-২৬-২০১২

বোন রিমিকে নিয়ে নানা আয়োজনে সোহেল তাজ


	বোন রিমিকে নিয়ে নানা আয়োজনে সোহেল তাজ

গাজীপুর-৪ (কাপাসিয়া) আসনের সাবেক ও বর্তমান সাংসদ বঙ্গতাজ তাজউদ্দীন আহমেদের ছেলে তানজীম আহমেদ সোহেল তাজ ও সিমিন হোসেন রিমি একসঙ্গে দলীয় নেতাকর্মীদের নিয়ে নিজ বাড়িতে বৈঠক করেছেন।
রোববার বিকেল ৪টায় কাপাসিয়া উপজেলার রায়েদ ইউনিয়নের দরদরিয়া গ্রামে বঙ্গতাজের বাড়িতে এ বৈঠক হয়।
বৈঠকে অংশ নেওয়া গাজীপুর জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি আনিছুর রহমান আরিফ সংবাদটি নিশ্চিত করেছেন।
সূত্র জানায়, বেসকরারি টেলিভিশন চ্যানেল, চ্যানেল আই’র আমেরিকা প্রতিনিধি কাপাসিয়ার সন্তান আশরাফুল আলম খোকনের মা ২২ নভেম্বর ইন্তেকাল করেন। মরহুমার কবর জিয়ারত করতে সাংসদ রিমি ও তার ভাই সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী ও সোহেল তাজ দুপুর ১টায় এক ঢালা গ্রামে খোকনের বাড়িতে যান। এরপর দুপুর দেড়টায় তারা ওই বাড়ি ত্যাগ করেন।
পরে কাপাসিয়া উপজেলার হাইলজোর স্কুল মাঠে বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় রিমি প্রধান অতিথি ছিলেন। এসময় বড় বোনের সঙ্গে মঞ্চে বসেন সোহেল তাজ। সেখান থেকে বেলা ৩টায় দরদরিয়া নিজ বাড়িতে যান।
বেলা ৪টা থেকে ৫টা পর্যন্ত বাড়ির সামনে আওয়ামী লীগের দলীয় নেতাকর্মীদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন তারা।
এসময় সোহেল তাজ বলেন, “আমি আপনাদের কাছে ক্ষমা চাই। আমার বোন এমপি হয়েছেন। আপনারা তাকে সহযোগিতা করবেন। আমাকে যেভাবে সহযোগিতা করেছেন ঠিক সেভাবে তাকেও সহযোগিতা করবেন।”
সোহেল তাজ বলেন, “আমি বিশ্বের যে প্রন্তেই থাকিনা কেন। আমি আপনাদের সঙ্গেই আছি এবং ভবিষ্যতেও থাকবো।”
বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে একই গাড়িতে ভাই-বোন ঢাকার বাসায় চলে যান। তাদের সঙ্গে ছিলেন, গাজীপুর জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক সাবেক সাংসদ মোহাম্মদ শহীদুল্লাহ, জেলা আওয়ামী লীগের শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আমানত হোসেন খানসহ দলীয় দলীয় নেতাকর্মীরা।
ভাইবোনকে এক সঙ্গে এক নজর দেখতে কাপাসিয়ার সাধারণ মানুষ ভীড় করতে দেখা যায়। যেখানেই তারা যান সেখানেই ছিল মানুষের ঢল।
প্রসঙ্গত, বাংলাদেশের প্রথম প্রধানমন্ত্রী বঙ্গতাজ তাজউদ্দীন আহমেদের ছেলে সোহেল তাজ গাজীপুর-৪ (কাপাসিয়া) আসনে দুইবার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। ২০০৮ সালে দ্বিতীয় বার সাংসদ হয়ে তিনি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী নিযুক্ত হন। এর কয়েক মাসের মাথায় তিনি প্রথমে স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী ও পরে সংসদ সদস্য পদ থেকে পদত্যাগ করেন। তার পদত্যাগে শূন্য হওয়া ওই আসনের উপ-নির্বাচনে বড় বোন রিমি ভাইয়ের স্থলাভিষিক্ত হয়ে নৌকা প্রতীক নিয়ে বিপুল ভোটের ব্যবধানে আপন চাচা আফছার উদ্দীন আহমেদকে পরাজিত করেন।
সোহেল তাজের পদত্যাগের পর বোনের নির্বাচনের সময় ও পরে সোহেল তাজ কাপাসিয়ায় আসেননি। অসুস্থ মা সৈয়দা জহুরা তাজউদ্দীনকে দেখতে বাংলাদেশে এসে বোনকে সঙ্গে নিয়ে প্রথমবারের মত রোববার কাপাসিয়ায় আসেন। কাপাসিয়ায় কয়েকটি অনুষ্ঠানে বোনের পাশে থেকে সোহেল তাজ দলীয় নেতাকর্মীদের সঙ্গেও খোলামেলা আলোচনা করেন।

গাজীপুর

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে