Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, শনিবার, ১৮ জানুয়ারি, ২০২০ , ৫ মাঘ ১৪২৬

গড় রেটিং: 3.0/5 (29 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)


আপডেট : ১১-২২-২০১২

ডিম চুরি: ৯ বছরের শিশুকে বেঁধে নির্যাতন


	ডিম চুরি: ৯ বছরের শিশুকে বেঁধে নির্যাতন

লোভ সামলাতে না পেরে মুদির দোকানের মালিকের অনুপস্থিতিতে ৩টি ডিম সরিয়ে ফেলেছিলো ৯ বছরের শিশু শাকিল মিয়া।
আর এ কারণে তাকে সিমেন্টের খুঁটিতে বেঁধে প্লাস্টিকের রশি দিয়ে বেঁধে শারীরিক নির্যাতন চালানো হয়েছে।
চরম অমানবিক এ ঘটনাটি ঘটেছে ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়া উপজেলার ছলির বাজারের এক মুদি দোকানে। মাত্র ২৪ টাকা মূল্যের ডিমের জন্য মুদি দোকানদার রহিম মিয়া এ ‘অবাক কাণ্ডটি’ ঘটিয়েছেন। এ নিয়ে উপজেলাজুড়ে দারুণ সমালোচনা সৃষ্টি হয়েছে।
জানা গেছে, ফুলবাড়িয়া উপজেলার জলিলীয়া মাদ্রাসার তৃতীয় শ্রেণীর ছাত্র শাকিল মিয়া (৯)। লোভ সামলাতে না পেড়ে বুধবার দুপুরে উপজেলার ছলির বাজারের রহিম মিয়ার মুদি দোকান থেকে সে দোকান মালিকের অনুপস্থিতে ৩টি মুরগির ডিম সরিয়ে ফেলে।
পাশের দোকান মালিক আবুল হোসেন বিষয়টি দেখে ফেলে প্রথমে শিশুটিকে আটক করে। পরে আটক শিশুটির গালে কষে দু’’চড় দিয়ে রহিম মিয়ার দোকানের সামনে নিয়ে সিমেন্টের খুঁটিতে হাত দু’টি পেছন দিকে বেঁধে প্রকাশ্যে নির্যাতন চালান।
কিছুক্ষন পরই আসে ডিম চুরি যাওয়া দোকানের মালিক রহিম মিয়া। সিমেন্টের খুঁটিতে বেঁধে রাখা শিশুটিকে আবারও প্লাস্টিকের রশি দিয়ে কষে বেঁধে অমানুষিক শারীরিক নির্যাতন চালান তিনিও।
এ সময় শিশুটির চিৎকারে বাজারের শতাধিক উৎসুক জনতা ভিড় জমায়। পরে উৎসুক জনতা তাকে দোকানদার রহিম মিয়ার কাছ থেকে অনুনয়-বিনয় করে ছাড়িয়ে নেন। অনেকেই এ ঘটনার জন্য রহিম মিয়া ও অপর দোকান আবুল হোসেনের কড়া সমালোচনা করেন।
এ বিষয়ে ফুলবাড়িয়া প্রেসক্লাবের সভাপতি নুরুল ইসলাম মাস্টার বলেন, “শিশুটিকে নির্যাতনের এ দৃশ্য সত্যিই অমানবিক। এ ঘটনার জন্য ওই দু’দোকানির শাস্তি হওয়া উচিত।”
এ ব্যাপারে ফুলবাড়িয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনোয়ার হোসেন ভূইয়া বলেন, “এ বিষয়টি আমার জানা নেই। খোঁজ নিয়ে দেখবো।”

ময়মনসিংহ

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে