logo

কিরগিজস্তানের জালে শুরুতেই গোলের লক্ষ্য মেয়েদের

কিরগিজস্তানের জালে শুরুতেই গোলের লক্ষ্য মেয়েদের

ঢাকা, ৩১ আগষ্ট- গত দুই ম্যাচে দুই দলের গোল দেয়া, খাওয়ার হিসেবটা বলে দিচ্ছে বাংলাদেশের মেয়েরাই ফেভারিট। প্রতিপক্ষের জালে ৮ গোল করেছে কৃষ্ণা-মৌসুমিরা; খায়নি একটিও। অন্যদিকে কিরগিজস্তানের মেয়েরা দুই ম্যাচে এক গোল দিয়ে হজম করেছে ১৬টি!

এএফসি অনূর্ধ্ব-১৬ চ্যাম্পিয়নশিপের বাছাই পর্বে ‘সি’ গ্রুপের ম্যাচে আগামী বুধবার বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে সন্ধ্যা ৬টায় মুখোমুখি হবে দুই দল। বাংলাদেশ কোচ গোলাম রব্বানী ছোটন অবশ্য প্রতিপক্ষকে সহজভাবে নিচ্ছেন না; আগের দুই ম্যাচের মতোই গুরুত্ব দিচ্ছেন।

“কিরগিজস্তানের বিপক্ষে ম্যাচ নিয়ে আলাদা করে ভাবার কিছু নাই। আমি আগেই বলেছি, ম্যাচ বাই ম্যাচ খেলব। ইরান শক্তিশালী প্রতিপক্ষ ছিল। সিঙ্গাপুরের বিপক্ষেও ৯০ মিনিট আধিপত্য করে জিতেছি। কিরগিজস্তানের বিপক্ষেও একই গুরুত্ব দিয়ে খেলব।”

“এটাকে সহজ ম্যাচ হিসেবে নিচ্ছি না। এটা অনূর্ধ্ব-১৬ মহিলা ফুটবল। এই পর্যায়ের ফুটবলে যেকোনো কিছু ঘটতে পারে। ৯০ মিনিট পর জিতছি না, সেটাই আমি আগে দেখব।”


একেবারে চিন্তামুক্তও নন ছোটন। শুরু থেকে আধিপত্য করে খেললেও কৃষ্ণা, সানজিদারা প্রত্যাশিত গোল পাচ্ছেন দেরিতে। ইরানের বিপক্ষে তিন গোলই দ্বিতীয়ার্ধে পাওয়া। সিঙ্গাপুরকে ৫-০ ব্যবধানে উড়িয়ে দেওয়া ম্যাচের প্রথম গোলটি আসে ৩৯তম মিনিটে। চাইনিজ তাইপের কাছে ৭টি, ইরানের কাছে ৯টি গোল হজম করা কিরগিজস্তানের জালে তাই শুরুতে গোল পাওয়ার লক্ষ্য বাংলাদেশ কোচের।

“এটা নিয়ে আমি কাজ করব। গত দুই ম্যাচে শুরুতে গোল পেলে প্রতিপক্ষ আরও ভেঙে পড়ত। কিরগিস্তানের বিপক্ষে শুরুতে গোল পাওয়ার লক্ষ্য আমাদের।”

বাছাই পর্বে চার গ্রুপের সেরা দল পাবে ২০১৭ সালে থাইল্যান্ডের মূল আসরে খেলার টিকেট। ‘সি’ গ্রুপ থেকে সেরা হতে হলে গোল ব্যবধানের হিসেবটাও হয়ে উঠতে পারে গুরুত্বপূর্ণ। সেদিকেও দৃষ্টি রাখছেন ছোটন, “গোল একটা সমস্যা হতে পারে; তাই কালকের ম্যাচে গোল বাড়ানোর দিকে লক্ষ্য থাকবে আমাদের।”

“সুযোগ তৈরি করেও শুরুতে গোল না পাওয়ার কারণ হচ্ছে প্রস্তুতি ম্যাচ খেলার সুযোগ না পাওয়া। এটা পেলে সমস্যাটা থাকত না। ফিনিশিং নিয়ে আজ ওদের ভিডিও সেশন করাব। আশা করি ঠিক হয়ে যাবে।”

এফ/০৮:৩৫/৩১আগষ্ট