logo

রাসুল (সা.)-এর দৃষ্টিতে সবচেয়ে ভালো মানুষ যারা

রাসুল (সা.)-এর দৃষ্টিতে সবচেয়ে ভালো মানুষ যারা

আমাদের প্রিয়নবী মুহাম্মাদ (সা.) সর্বযুগের সর্বশ্রেষ্ঠ মানুষ; এটা সর্বজনবিদিত। আর সাধারণত জাতি হিসেবে মুসলমানরা সবচেয়ে ভালো মানুষ। এ প্রসঙ্গে আল্লাহ তায়ালা ইরশাদ করেন, ‘তোমরাই হলে সর্বোত্তম উম্মত, মানবজাতির কল্যাণের জন্যই তোমাদের উদ্ভব ঘটানো হয়েছে। তোমরা সৎকাজের আদেশ করবে ও অন্যায় কাজে বাধা দেবে এবং আল্লাহর প্রতি ঈমান আনবে।’ (সুরা আলে ইমরান, আয়াত: ১১০)

তবে প্রিয় নবী (সা.) বিভিন্ন প্রসঙ্গে কিছু বিশেষ গুণের অধিকারী মানুষকেও সবচেয়ে ভালো মানুষ বলে আখ্যায়িত করেছেন। ওইসব গুণ অর্জনের লক্ষ্যে আমাদেরও সেইসব ভালো মানুষদের চেনে রাখা উচিত। নিম্নে তাদের সম্পর্কে কয়েকটি হাদিস বিধৃত হলো-

এক. সর্বশেষ ও সর্বশ্রেষ্ঠ নবী মুহাম্মাদ (সা.) এর সান্নিধ্য ও সাহচর্য লাভের চেয়ে বড় সৌভাগ্যের বিষয় আর কী হতে পারে? সেজন্য এই শ্রেষ্ঠ উম্মতের শ্রেষ্ঠ প্রজন্ম হলেন সাহাবায়ে কেরাম। তাদের পর তাবেঈন এবং তবে তাবেঈন। আবদুল্লাহ ইবনে মাসউদ (রা.) বর্ণনা করেন, রাসুল (সা.) বলেছেন, ‘মানুষদের মধ্যে সবচেয়ে ভালো হলো আমার যুগের লোকজন। এরপর তাদের পরবর্তী লোকজন এবং তারপর ওদের পরবর্তী লোকজন।’ (মুসলিম, হাদিস নং: ২৫৩৩)

দুই. উসমান ইবনে আফফান (রা.) থেকে বর্ণিত হাদিসে রাসুলুল্লাহ (সা.) বলেন, তোমাদের মধ্যে সেই সবচেয়ে ভালো; যে কোরআন শিখে এবং শেখায়।’ (বুখারি, হাদিস নং: ৪৭৩৯)

তিন. রাসুলুল্লাহ (সা.) বলেন, ‘যে মানুষের উপকার করে, সেই সবচেয়ে ভালো মানুষ।’ (সুনানে দারাকুতনি)

চার. আবদুল্লাহ ইবনে আব্বাস (রা.) থেকে বর্ণিত হাদিসে রাসুলুল্লাহ (সা.) বল, ‘তোমাদের মধ্যে সেই ব্যক্তি সর্বাধিক উত্তম, যে তার পরিবারের নিকট ভালো। বস্তুত তোমাদের মধ্যে আমি আমার পরিবারের জন্য সবচেয়ে ভালো।’ (সুনানে তিরমিজি, হাদি নং: ১৯৭৭)
অর্থাৎ পরিবারের অধিকার আদায় করে এবং যথাযোগ্য পন্থায় তাদের সঙ্গে ব্যবহার করে।

পাঁচ. আবদুল্লাহ ইবনে ওমর (রা.) থেকে বর্ণিত হাদিসে রাসুল (সা.) বলেন, ‘সঙ্গী হিসেবে আল্লাহ তায়ালার নিকট সেই উত্তম; যে নিজ সঙ্গীদের কাছে ভালো এবং প্রতিবেশী হিসেবে আল্লাহ তায়ালার নিকট সেই শ্রেষ্ঠ; যে আপন প্রতিবেশীর কাছে ভালো।’ (সুনানে তিরমিজি, হাদিস নং: ১৯৪৪)
অর্থাৎ তাদের প্রাপ্য অধিকার আদায়ে ত্রুটি করে না এবং তাদের সঙ্গে সদ্ব্যবহার করে থাকে।

ছয়. আবু হুরায়রা (রা.) থেকে বর্ণিত হাদিসে রাসুল (সা.) বলেন, ‘ইসলামের বিবেচনায় তোমাদের মধ্যে সর্বাধিক উত্তম ব্যক্তি সেই; যে সুন্দর চরিত্রের অধিকারী। যখন তাদের মাঝে দ্বীনের জ্ঞান বিদ্যমান থাকে।’ (আল আদাবুল মুফরাদ; ইমাম বোখারি, হাদিস নং: ২৮৫)

সাত. আবু বাকরাহ (রা.) বলেন, জনৈক সাহাবি রাসুলুল্লাহ (সা.) এর নিকট এসে জিজ্ঞেস করলেন, সবচেয়ে ভালো (সৌভাগ্যবান) মানুষ কে? রাসুল (সা.) বলেন, যে দীর্ঘ জীবন লাভ করে এবং পুণ্যকাজ করে। ওই সাহাবি পুনরায় জিজ্ঞেস করলেন, তাহলে সবচেয়ে খারাপ মানুষ কে? রাসুল (সা.) বলেন, যে দীর্ঘ জীবন পায়, আর মন্দকাজ করে যায়। (সুনানে তিরমিজি, হাদিস নং: ২৩২৯)

আট. ইরবাজ ইবনে সারিয়া (রা.) বলেন, আমি রাসুল (সা.) এর নিকট বসা ছিলাম। ইত্যবসরে জনৈক বেদুইন এসে নবীজিকে বলল, আপনি আমার পাওনা উটের ঋণ পরিশোধ করুন! রাসুল (সা.) তাকে প্রাপ্তবয়স্ক একটি উট (যার মূল্যমান বেশি) দিয়ে দিলেন। লোকটি বলে উঠলো, আমি তো আপনাকে কমবয়সী উট (যার মূল্যমান কম) দিয়েছিলাম! প্রতিউত্তরে রাসুল (সা.) বলেন, লোকদের মধ্যে সেই সবচেয়ে ভালো; যে ঋণ আদায়ের ক্ষেত্রে ভালো। (সুনানে ইবনে মাজাহ: ২২৮৬)
অর্থাৎ ঋণ পরিশোধের ক্ষেত্রে ভালো ব্যবহার দেখায় এবং যা ধার করেছিলো সাধ্যমত তার চেয়ে ভালো কিছু পরিশোধ করে।

লেখক: মাহফুয আহমদ
আলোচক, ইকরা টিভি, লন্ডন, যুক্তরাজ্য


আর এস/ ১৯ মার্চ