logo

চরফ্যাশনে বিএনপির কর্মী বৈঠকে আ.লীগের হামলা

চরফ্যাশনে বিএনপির কর্মী বৈঠকে আ.লীগের হামলা

ভোলা, ২৬ নভেম্বর- ভোলার চরফ্যাশন উপজেলায় বিএনপির ওয়ার্ড কর্মী বৈঠকে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর করার পাশাপাশি তিনটি মোটরসাইকেলে আগুন দেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে।

সোমবার সকাল ৮টার দিকে ৭নং ওয়ার্ডের অসলাম হাওলাদারের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। স্থানীয় ছাত্রলীগ নেতা সোহেলের নেতৃত্বে এ হামলা করা হয়েছে বলে বিএনপির পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছে। তবে এ দাবি নাকচ করে দিয়ে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতারা বলছেন, নিজেদের দলীয় কোন্দলে এ ঘটনা ঘটেছে।

উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আলমগীর মালতিয়া ও সাবেক এমপি নাজিম উদ্দিন আলম দাবি করেছেন, সোমবার সকালে শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ৭নং ওয়ার্ডের অসলাম হাওলাদারের বাড়িতে তাদের কর্মী বৈঠক হচ্ছিল। এ সময় আওয়ামী লীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা তাদের ওপর হামলা করে। এ সময় তাদের ১৫ নেতাকর্মী আহত হন। একজনকে অপহরণ করে দুই লাখ টাকা মুক্তিপণ চাওয়া হয়। এছাড়া তিনটি মোটরসাইকেল পুড়িয়ে দেয় তারা। হামলায় সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান রফিক আসলামী, টুলু মিয়া, সালাউদ্দিন মিয়া, আলাউদ্দিন মিয়া, জলিল মাঝিসহ কমপক্ষে ১৫ জন আহত হন।

তবে বিষয়টি অস্বীকার করে চরফ্যাশন প্রেস ক্লাবে দুপুরে এক সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক পৌর প্যানেল মেয়র জায়ের ভুইয়া বলেন, বিএনপির দুই গ্রুপের দ্বন্দ্বের জেরে এ হামলার ঘটনা ঘটে। ওই সময় ওই এলাকার এক ছাত্রলীগ কর্মীকে গলা টিপে হত্যার চেষ্টা করা হয়েছিল।
 
এ বিষয়ে চরফ্যাশন থানা পুলিশের ওসি এনামুল হক বলেন, খবর পেয়ে দ্রুত পুলিশের একটি টিম ঘটনাস্থলে পাঠানো হয়। বর্তমানে পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে।


তথ্যসূত্র: জাগো নিউজ২৪
আরএস/ ২৬ নভেম্বর