Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, বৃহস্পতিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ , ৩ আশ্বিন ১৪২৬
হাস্যরসে ভরপুর লেখা দিতে লগইন/রেজিষ্টার করুন

হাসিখুশি ক্লাব -> General

হাসতে নেই মানা

জোকস-১ মেডিকেলের ক্লাসে হার্ট অ্যাটাক বিষয়ে পড়াচ্ছেন বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক। তিনি বললেন- অধ্যাপক: শতকরা ৯০ ভাগ হার্ট অ্যাটাক হয় সাধারণত ছেলেদের। বাকি ১০ ভাগ হয়ে থাকে মেয়েদের। শিক্ষার্থী: কেন এমন হয়, স্যার? অধ্যাপক: বিষয়টি খুবই সহজ ভাই। শিক্ষার্থী: কিভাবে স্যার? অধ্যাপক: মেয়েদের হার্টের সামনে বাম্পার লাগানো আছে, তাই! জোকস-২ একদল তরুণ সন্ন্যাসী তীর্থ যাত্রার উদ্দেশ্যে রওনা দিয়েছে। গুরু বললেন, ‘যদি কোন সুন্দরী তোমাদের চোখকে আকর্ষণ করে, তবে চোখ বন্ধ করে ফেলবে। সাথে সাথে বলবে, ‘হরি ওঁম!’ দু’দিন পর রাস্তায় হাঁটতে হাঁটতে একজন বলে উঠল, ‘হরি ওঁম!’ সাথে সাথে বাকি সবাই বলে উঠল, ‘কই? কই? কোন দিকে?’ জোকস-৩ জিন্স প্যান্ট ব্যবসায়ী ফখরুল সকালবেলা থানায় হাজির! ডিউটি অফিসার: সকাল সকাল থানায় কেন আসছেন? ফখরুল: আমার বউয়ের বিরুদ্ধে সেপারেশন কেস দেব। গত ৫ বছর ধরে বউয়ের সাথে আমার কোন কথা হয় না। ডিউটি অফিসার: বাচ্চা-কাচ্চা ক’টা? ফখরুল: ২টা ছেলে! বড় ছেলে ৪ বছর আর ছোটটা ২ বছর! ডিউটি অফিসার: কী বলেন! একটু আগেই বললেন ৫ বছর ধরে কথা হয় না! তাহলে কিভাবে কী ভাই? ফখরুল: কী যে বলেন স্যার! বাচ্চা হওয়ার জন্য কি কথা বলতে হয় না-কি! এমএ/ ১০:২২/ ২০ জুলাই

মাকে কষে রোবটের চড়, বাবা অজ্ঞান

বাড়িতে রোবট কিনে আনলেন কর্তা বাবু। রোবটের কাজ হলো যে মিথ্যা বলবে তার গালে চড় মারা। ছেলে অনেক রাত করে বাড়ি ফিরেছে- বাবাঃ এতো রাতে কোথায় ছিলে? ছেলেঃ বন্ধুর বাড়ি। রোবট এসে ছেলেকে কষে দিলো চড়। চড় খেয়ে ছেলে সত্য বললো, সে পাশের দোকানে সিগারেট খেতে গিয়েছে। বাবা রেগে বললো, তোর এতো বড় সাহস এই বয়সে সিগারেট খাস? তোর বয়সে আমি সিগারেট হাত দিয়ে ধরেনি কখনো। এবার রবোট এসে বাবাকে দিলো চড়। ছেলের সামনে বাবাকে চড় খেতে দেখে মা এসে বললো, বাদ দাও তো, তোমারি তো ছেলে। এবার রবোট এসে মাকে কষে একটা দিলো। এটা দেখে বাবা অজ্ঞান হয়ে মাটিতে পড়ে গেলো... এমএ/ ০১:০০/ ০৩ জুলাই

ব্রেকআপের আগে মিষ্টিমুখ

পিংকি: আমি আমাদের এই প্রতিদিনের ঝগড়ায় খুবই বিরক্ত। আমাদের মধ্যে এখন বোঝাপড়ার বড় অভাব। তাই আমার মতে আমাদের ব্রেকআপ হয়ে যাওয়া উচিত। বল্টু: ঠিক আছে। প্রথমে চকোলেট খাও। পিংকি: ওয়াও! তুমি আমায় চকোলেট দিলে, তার মানে তুমি আমাদের সম্পর্কটা চালাতে চাও? বল্টু : আরে না। আম্মু বলেছে কোনো শুভ কাজ করার আগে মিষ্টি মুখ করতে!

বারবার ফোন করি

ঝগড়ার পর বউ রাগ করে বাপের বাড়ি চলে গেছে। স্বামী রোজ কয়েকবার ফোন করে। কিন্তু স্ত্রীর বদলে শাশুড়ি ফোন ধরেন এবং বিরক্ত কণ্ঠে জানিয়ে দেন যে তার মেয়ে এমন ছেলের ঘর করবে না। আজও জামাই ফোন দিলো শ্বশুরবাড়িতে। শাশুড়ি : কতোবার বলবো যে আমার মেয়ে তোমার সংসার আর করবে না! তারপরও বারবার ফোন করে বিরক্ত করছো কেন, বাবা? জামাই : আপনার প্রথম কথাটা বারবার শুনতে খুউব ভালো লাগে, শান্তি পাই আম্মা। এজন্যই বারবার ফোন করি।

টিপসই দিলে কেন?

মন্টু : বাবা! বাবা! এটা কী করলে তুমি? মন্টুর বাবা : কেন, হয়েছেটা কী? মন্টু : আমার রেজাল্ট কার্ডে সই না দিয়ে টিপসই দিলে কেন? মন্টুর বাপ : যে রেজাল্ট করেছিস, আমি চাই না স্কুলের কেউ জানুক এই বাড়িতে লেখাপড়া জানা কেউ থাকে!

বেকার প্রেমিকের বুদ্ধিমতি প্রেমিকা

প্রেমিক : আমার মাঝে সবচেয়ে বেশি কোন জিনিসটা ভালোলাগে তোমার? প্রেমিকা : সময়ের সঙ্গে সঙ্গে সব জিনিস বদলায় কিন্তু তুমি...! প্রেমিক : বলো জান, আমি কী? প্রেমিকা : তুমি বদলাওনি! প্রেমিক : তোমাকে ভালোবাসার ক্ষেত্রে? প্রেমিকা : না, পরিচয়ের প্রথমদিনও তুমি বেকার ছিলে, আজও বেকারই আছো!

তরুণীর গায়ে চিমটি

যাত্রীবোঝাই বাসে উঠে স্বামী পড়লেন সুন্দরী এক তরুণীর পাশে। রড ধরে ঝুলতে থাকা স্বামীর অপর পাশে স্ত্রী দাঁড়ালেন এবং রাগে ফুঁসতে থাকলেন। হঠাৎ সুন্দরী কষে চড় লাগাল স্বামীর গালে আর মুখে বলল- সুন্দরী : বদমাশ! মেয়েদের গায়ে চিমটি কাটিস ভিড়ের মধ্যে। স্বামী চড় খেয়ে ভ্যাবাচ্যাকা খেয়ে গেল! তারচেয়ে বড় কথা বউকে সামলানো। তিনি স্ত্রীর দিকে ফিরে মিনতিভরা কণ্ঠে বললেন- স্বামী : কসম জানু, আমি এই কাজ করি নাই! স্ত্রী : তুমি কর নাই জানি। কারণ কাজটা আমিই করেছি। ডাইনিটা তোমার দিকে কেমন করে তাকিয়েছিল। চোখের পলক ফেলছিল না। তুমি তো খেয়াল করো নাই।

সবাই দুলাভাই ডাকে

এক কলেজ ছাত্র একই কলেজের এক সুন্দরী ছাত্রীকে বললো-  ছাত্র : তোমার নাম কী? ছাত্রী : সবাই আমাকে আপু বলে ডাকে। ছাত্র : কী অদ্ভুত ব্যাপার!  ছাত্রী : কেন? ছাত্র : আমাকে তো সবাই দুলাভাই বলে ডাকে!

বিয়ে করে ছুটি নষ্ট

কর্মচারী : স্যার, পাঁচ দিনের ছুটি চাই। বস : কেন? মাত্রই তো তুমি ১০ দিন ছুটি কাটিয়ে ফিরলে। কর্মচারী : স্যার আমার বিয়ে। বস : বিয়ে করবে ভালো কথা। তো এত দিন ছুটি কাটালে, তখন বিয়ে করোনি কেন? কর্মচারী : মাথা খারাপ? বিয়ে করে আমার সুন্দর ছুটির দিনগুলো নষ্ট করবো নাকি?

রচনা কমন পড়েনি

স্কুলে বার্ষিক পরীক্ষা আরম্ভ হলো। পরীক্ষার হলে এক ছাত্রী জোরে জোরে কাঁদছে। শিক্ষক : তুমি কাঁদছো কেন? ছাত্রী : আমার রচনা কমন পড়েনি। শিক্ষক : কেন? কী এসেছে? ছাত্রী : এসেছে ‘ছাত্রজীবন’। স্যার, আমি তো ছাত্রী। ‘ছাত্রজীবন’ লিখবো কীভাবে!

ড্রাইভিং ইন্টারভিউ….

ড্রাইভার পদে চাকরির জন্য মন্টু গেছে ইন্টারভিউ দিতে। ইন্টারভিউ চলছে- প্রশ্নকর্তা: আপনাকে আমার পছন্দ হয়েছে। চাকরিটা আপনাকে দেওয়া হবে। স্টার্টিং বেতন দেওয়া হবে দুই হাজার টাকা। আপনার কোনো সমস্যা নেই তো? মন্টু : না না স্যার, আমার কোনো সমস্যা নেই। স্টার্টিং বেতন ঠিক আছে, কিন্তু ড্রাইভিং বেতন কত সেটাও তো জানা দরকার মনে হয় !!!!

বাপ-বেটা যখন বন্ধু

শান্ত একবার মন খারাপ করে বসে আছে। ওর বাবা বললেন, ‘কী রে, মন খারাপ কেন?' শান্ত কিছুতেই কিছু বলে না, একদম চুপ।  বাবা কাঁধে হাত রেখে বললেন, ‘আরে বল। মনে কর আমি তোর বাবা না, তোর বন্ধু।'  এবার শান্ত মুখ খুলল, ‘আর বলিস না ভাই। গতকাল আমারটাকে নিয়ে ঘুরতে বেরিয়েছিলাম। তোরটা দেখে ফেলেছে। তারপর আমাকে কি মারটাই না মারল!'

 1 2 3 >  শেষ ›
Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে