দক্ষিণ আমেরিকা

পেরুর প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নিলেন বামপন্থী পেদ্রো

লিমা, ২৯ জুলাই – পেরুর প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নিয়েছেন বামপন্থী নেতা ও প্রাক্তন স্কুল শিক্ষক পেদ্রো ক্যাস্তিলো। স্থানীয় সময় বুধবার রাজধানী লিমায় তার শপথ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয় বলে জানিয়েছে সংবাদ মাধ্যম। প্রেসিডেন্টের শপথ অনুষ্ঠান ও স্বাধীনতা দিবসকে কেন্দ্র করে তিন দিনব্যাপী নানা আয়োজন থাকছে লিমায়।

ভোটে তুমুল লড়াইয়ের কয়েক সপ্তাহ পর তার জয়ী হওয়ার ঘোষণা দেয় ন্যাশনাল ইলেকশনস জুরি (জেএনই)। নতুন সরকার গঠন, করোনা নিয়ন্ত্রণ এবঙ দেশকে ঐক্যবদ্ধ করার মতো ইস্যুগুলো নিয়ে চ্যালেঞ্জের মুখে পড়তে হচ্ছে এই নয়া প্রেসিডেন্টকে।

৫১ বছর বয়সী পেদ্রো একজন দরিদ্র, প্রান্তিক কৃষকের সন্তান। পেরুর গ্রামীণ দরিদ্র ভোটারদের সমর্থনেই তিনি প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হয়েছেন।

অভিষেক ভাষণে পেদ্রো বলেন, ‘এই প্রথম এ দেশ (পেরু) একজন কৃষক দ্বারা পরিচালিত হবে।’ তিনি আরও বলেন, ‘পেরুতে এখনো ঔপনিবেশিক ক্ষত গভীরভাবে রয়ে গেছে। তিনি এই ক্ষত সারিয়ে তুলতে চান’।

গত ৬ জুন পেরুতে দ্বিতীয় দফার প্রেসিডেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। নির্বাচনে জালিয়াতির অভিযোগ করেন পেদ্রোর নির্বাচনী প্রতিপক্ষ ডানপন্থী কিকো ফুজিমোরি। অবশেষে ভোট বিশ্লেষণ করে গত সোমবার রাতে ফলাফল ঘোষণা করে দেশটির ন্যাশনাল ইলেকশনস জুরি (জেএনই)।

রাজনীতিতে পেদ্রো নতুন মুখ। ফ্রি পেরু পার্টির হয়ে জয়ী হয়েছেন তিনি। অপরদিকে, কিকো রাজনৈতিক পরিবারে বেড়ে ওঠা একজন ঝানু রাজনীতিক। তার বাবা আলবার্তো ফুজিমোরি পেরুর সাবেক প্রেসিডেন্ট। দুর্নীতি ও মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে আলবার্তো ২৫ বছরের কারাদণ্ড ভোগ করছেন।

পেদ্রো এমন দিনে প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব নিলেন, যেদিন স্পেনের কাছ থেকে স্বাধীন হওয়ার ২০০তম বার্ষিকী পালন করছে দেশটি।

সূত্র : জাগো নিউজ
এন এইচ, ২৯ জুলাই

Back to top button