পশ্চিমবঙ্গ

রাজ্যে আবারও বাড়ল করোনার বিধি-নিষেধ, চালু হচ্ছে না লোকাল ট্রেন

কলকাতা, ২৯ জুলাই – রাজ্যে আবারও বাড়ল করোনার বিধি-নিষেধ। সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে রাখতে এখনও সব পরিষেবা চালু করার ঝুঁকি নিচ্ছে না রাজ্য সরকার। ৩১ জুলাই পর্যন্ত যে বিধি-নিষেধ চালু ছিল, তারই মেয়াদ বাড়িয়ে করা হল ১৫ অগস্ট পর্যন্ত। আজ, বৃহস্পতিবার সকালে নবান্ন থেকে সেই বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়েছে। বিধি-নিষেধের এই নতুন পর্যায়ে তেমন কোনও পরিবর্তন হচ্ছে না নিয়মে। লোকাল ট্রেন চালু করার কথা এ বারও জানায়নি রাজ্য। শুধু সরকারি অনুষ্ঠানের ক্ষেত্রে নতুন করে কিছুটা ছাড় দেওয়া হয়েছে।

নয়া বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে এ বার থেকে কোনও সরকারি অনুষ্ঠান করতে গেলে ৫০ শতাংশের উপস্থিতিতে কোনও ঘেরা জায়গায় তা করা যেতে পারে। এ ছাড়া প্রত্যেক সেক্টরের ক্ষেত্রে যতটা সম্ভব ‘ওয়ার্ক ফ্রম হোম’ করানোর কথা উল্লেখ করা হয়েছে। তবে রাত ৯ টা থেকে ভোর ৫ টা নাইট কার্ফুর ক্ষেত্রে আরও কড়া ব্যবস্থা নিতে চলেছে প্রশাসন। সব জেলার পুলিশ সুপার ও জেলা শাসকদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে যাতে নাইট কার্ফুর বিষয়টিতে তাঁরা আরও বেশি জোর দেন। রাতে কোনও গাড়ি চলাচলের নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে।

গত মঙ্গলবারই করোনা বিধি মানা নিয়ে জেলাগুলিকে আরও কড়া নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যসচিব হরিকৃষ্ণ দ্বিবেদী। রাত ৯ টা থেকে ভোর পাঁচটা পর্যন্ত যে কড়া বিধিনিষেধ জারি করা হয়েছে, সেই বিধিনিষেধ অনেক ক্ষেত্রেই সাধারণ মানুষ এবং বেশ কিছু হোটেল রেস্তোরাঁ মানছে না বলে অভিযোগ আসছে। তাই নাকা চেকিং-এর পাশাপাশি প্রয়োজন হলে আবগারি দফতরকেও নামানোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। আইন ভঙ্গকারীদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনে কড়া পদক্ষেপ নেওয়ার নির্দেশও রয়েছে।

গতকালই গাইডলাইনের মেয়াদ বাড়িয়েছে কেন্দ্রও। ৩১ অগস্ট পর্যন্ত দেশ জুড়ে করোনা সংক্রান্ত গাইডলাইনের মেয়াদ বাড়িয়েছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক। বুধবার কেন্দ্রের তরফে এই নির্দেশিকা দেওয়া হয়েছে। একইসঙ্গে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের তরফ থেকে দেশের সব রাজ্য ও কেন্দ্র শাসিত অঞ্চলগুলিকে চিঠি লিখে জানিয়েছে যাতে করোনা বিধির ক্ষেত্রে কোনও ছাড় না দেওয়া হয়। সংক্রমণ কমে গিয়েছে বলে কেউ যেন আত্মতু্ষ্টিতে না ভোগেন, এমনটাও লেখা হয়েছে চিঠিতে।

সূত্র: টিভিনাইন
এম ইউ/২৯ জুলাই ২০২১

Back to top button