দক্ষিণ এশিয়া

’তালেবানরা সাধারণ নাগরিক, তারা মোটেই জঙ্গি নয়’ : ইমরান খান

ইসলামাবাদ, ২৯ জুলাই – তালেবানরা সাধারণ নাগরিক। তারা মোটেই জঙ্গি নয়। কী করে পাকিস্তান তাদের হত্যা করতে পারে। আফগানিস্তানের বর্তমান অগ্নিগর্ভ পরিস্থিতি নিয়ে মুখ খুলতে গিয়ে এভাবেই জঙ্গি গোষ্ঠীর পক্ষে সওয়াল করলেন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান । আফগানিস্তানে তালিবানদের সাহায্য করতে অন্তত ১০ হাজার পাক সেনা সেদেশে গিয়েছেন, এমন গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে। সেপ্রসঙ্গে প্রশ্ন করা হলে এক টিভি সাক্ষাৎকারে এই কথা বলেন তিনি।

ঠিক কী বলেছেন ইমরান? তাঁর কথায়, ‘‘এসব কথা একেবারেই ভিত্তিহীন। ওরা এর সপক্ষে কোনও প্রমাণ দিতে পারবে? দেখুন তালিবানরা সাধারণ নাগরিক। পাকিস্তানে ৩০ লক্ষ আফগান শরণার্থী থাকেন। যদি সেই শিবিরে তালিবানরাও থাকে, তাহলে তাদের খুঁজে বের করে হত্যা করতে পারে কি পাকিস্তান?’’

ইমরান যতই তালিবানদের ‘সাধারণ নাগরিক’ বলে দাবি করুন, মার্কিন সেনা সরতে শুরু করার পরই আফগানিস্তানকে রক্তাক্ত করতে শুরু করেছে তারা। দেশটির প্রায় চারশো জেলার মধ্যে দুশোটি দখল করেছে তারা বলে দাবি সন্ত্রাসবাদী সংগঠনটির। কান্দাহার ও হেরাতের মতো শহরগুলিতে লাগাতার হামলা চালাচ্ছে জেহাদিরা। সাধারণ মানুষকে আক্রান্ত হতে হচ্ছে। সম্প্রতি সেদেশের জনপ্রিয় কৌতুকশিল্পী নজর মহম্মদকে গাছে বেঁধে গলা কেটে হত্যা করেছে জঙ্গিরা। সেই ভয়ংকর মৃত্যুর ভিডিও টুইটারের মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে। ক্রমশ তালিবানদের ভয়াবহতার স্বরূপ ফুটে উঠছে এই ধরনের ঘটনা সামনে আসায়।

আফগানিস্তানে তালিবানদের প্রত্যাঘাত করার চেষ্টা করছে আফগান সেনা। আর এই পরিস্থিতিতে জঙ্গি গোষ্ঠীর হাত শক্ত করতেই সেদেশে প্রবেশ করেছে বিরাট সংখ্যক পাক সেনা। সেই সঙ্গে জঙ্গি গোষ্ঠী লস্কর সেদেশে ঘাঁটি গড়ে ফেলেছে বলে জানা গিয়েছে। কেবল লস্করই নয়, জইশ-ই-মহম্মদও ঘাঁটি গেড়েছে বলে দাবি। যদিও পাকিস্তান এই ধরনের দাবিকে ‘গুজব’ বলে উড়িয়ে দিতে চেয়েছে। কিন্তু তা সত্ত্বেও তালিবানের সঙ্গে তাদের আঁতাত ক্রমশই স্পষ্ট হয়ে উঠছে।

তথ্যসূত্র: সংবাদ প্রতিদিন
এস সি/ ২৯ জুলাই

Back to top button