মধ্যপ্রাচ্য

সৌদি নেতৃত্বাধীন জোট ইয়েমেন থেকে তেল ও তরল প্রাকৃতিক গ্যাস লুট করে নিয়ে যাচ্ছে

সানা, ১৭ জূলাই – প্রতিমাসে ইয়েমেন থেকে ৩০ থেকে ৪০ লাখ ব্যারেল তেল নিয়ে যাচ্ছে সৌদি নেতৃত্বাধীন জোট। এমন অভিযোগ করেছে ইয়েমেনের রাষ্ট্র-নিয়ন্ত্রিত তেল কোম্পানির ব্যবস্থাপনা পরিচালক আম্মার আল-আজরায়ি। গণমাধ্যমে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, সৌদি নেতৃত্বাধীন জোট ইয়েমেন থেকে তেল ও তরল প্রাকৃতিক গ্যাস লুট করে নিয়ে যাচ্ছে। ফলে ইয়েমেন সরকার তাদের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সময়মতো বেতন পরিশোধ করতে পরছে না। তেল বিক্রির অর্থ কোথায় খরচ করা হচ্ছে তা নিয়েও শঙ্কা প্রকাশ করেন আম্মার আল-আজরায়ি।

তিনি জানান, সম্প্রতি সৌদি-নেতৃত্বাধীন বাহিনী সৌদি আরবের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলীয় জিযান বন্দরের কাছে ইয়েমেনের চারটি জাহাজ জব্দ করে। এগুলোর মধ্যে দু’টিতে ছিল পেট্রল, একটিতে কারখানায় ব্যবহৃত জ্বালানি তেল এবং অপরটিতে ছিল তরল গ্যাস।

গত ছয় বছর ধরে জল, স্থল ও আকাশপথে ইয়েমেনের ওপর কঠোর অবরোধ আরোপ করে রেখেছে সৌদি আরব। ইয়েমেনের লাখ লাখ মানুষের জীবন ও জীবিকার উৎস হুদায়দা সমুদ্রবন্দরের ওপর অবরোধ আরোপ করে রাখার কারণে দারিদ্রপীড়িত দেশটির অর্থনৈতিক দুরবস্থা চরমে পৌঁছেছে। সৌদি নেতৃত্বাধীন বাহিনী প্রায়ই ইয়েমেনের জন্য আমদানি করা তেলসহ অন্যান্য জরুরি পণ্য সামগ্রী জব্দ করে।

গণমাধ্যমে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে আম্মার আল-আজরায়ি আরও বলেন, সৌদি আরব কতৃক ইয়েমেনের তেল সম্পদ লুটের কারণে দেশটিতে দেখা দিয়েছে জ্বালানি সংকট। সম্প্রতি যা ব্যাপক আকার ধারণ করেছে। জাতিসংঘ বলেছে, ইয়েমেনের ওপর থেকে অবরোধ প্রত্যাহার ও দেশটির ওপর আগ্রাসন বন্ধ না হলে দেশটিতে দেখা দেবে ভয়াবহ মানবিক সংকট।

ইয়েমেনে ২০১৪ সাল থেকে গৃহযুদ্ধ চলছে। সেসময় ইরান সমর্থিত হুথিরা ইয়েমেনের উত্তরাঞ্চলের অধিকাংশ অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়ে এবং রাজধানী সানা দখলে নিয়ে নেয়। ফলে দেশটির আন্তর্জাতিক স্বীকৃতপ্রাপ্ত সরকার ক্ষমতা থেকে বিতাড়িত হয়।

এর পরের বছর ইয়েমেন সরকারের সমর্থনে সৌদি আরবের নেতৃত্বে সামরিক জোট হুথিদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ শুরু করে। এই যুদ্ধে ইয়েমেনে ১ লাখ ৩০ হাজারেরও বেশি মানুষ নিহত হয়েছে। যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশটিতে তৈরি হয়েছে বিশ্বের অন্যতম গুরুতর মানবিক সঙ্কট।

তথ্যসূত্র: জাগো নিউজ
এস সি/১৭ জূলাই

Back to top button