কুড়িগ্রাম

কুড়িগ্রামে মন্দিরের ধ্বংসাবশেষ থেকে নন্দী মূর্তি উদ্ধার

কুড়িগ্রাম, ১১ জুলাই- কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরীতে একটি মন্দিরের ধ্বংসাবশেষ থেকে ২০ কেজি ওজনের একটি নন্দী মূর্তি (গো-মূর্তি) উদ্ধার করেছে স্থানীয়রা। শুক্রবার মাটি খননের সময় প্রাচীন আমলের ওই মূর্তিটি পাওয়া যায়। খবর পেয়ে শনিবার মূর্তিটি উদ্ধার করে পুলিশ।

রোববার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে জেলা পুলিশ অফিসের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে পুলিশ সুপার সৈয়দা জান্নাত আরা এসব তথ্য জানান।

তিনি আরও জানান, নাগেশ্বরী উপজেলার নেওয়াশি ইউনিয়নের মধ্য সুখাতি বামনটারী (কাশিরভিটা) এলাকায় ধান ক্ষেতের মাঝে প্রায় ৬ শতাংশ জায়গা জুড়ে মাটির একটি উঁচু ঢিবি রয়েছে। স্থানীয়দের মতে, এটি একটি প্রাচীন মন্দিরের ধ্বংসাবশেষ। এজন্য জায়গাটি দেবোত্তর সম্পত্তি হিসেবে রেকর্ড রয়েছে।

পুলিশ সুপার সৈয়দা জান্নাত আরা জানান, শুক্রবার ওই ঢিবির মাটি খননের সময় স্থানীয় অধিবাসী শ্রীধর চন্দ্র বর্মণ ও তার সঙ্গীরা পাথরের তৈরি নন্দী মূর্তিটি পায়। পরে শ্রীধর চন্দ্র বর্মন মূর্তিটি তার বাড়িতে নিয়ে রাখেন। শনিবার ওই এলাকার বিট পুলিশ কর্মকর্তা বিষয়টি জানার পর একই দিন বিকেলে মূর্তি উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসেন। পরে মূর্তিটি জেলা সদরে আনা হয়েছে।

পুলিশ সুপার আরও জানান, মূর্তিটির দৈর্ঘ্য ১৩ ইঞ্চি ও প্রস্থ ৫ দশমিক ৫ ইঞ্চি । মূর্তিটির মাথার দিকে উচ্চতা ১১ ইঞ্চি এবং পিছনের দিক ৭ দশমিক ৫ ইঞ্চি উচ্চতার। কালচে রংয়ের পাথর খোদাই করে তৈরি মূর্তিটি প্রত্নতত্ত্ব দপ্তরের কাছে হস্তান্তরের প্রক্রিয়া চলছে বলেও জানান তিনি।

সূত্রঃ সমকাল

আর আই

Back to top button