আফ্রিকা

সাবেক প্রেসিডেন্ট জুমার মুক্তির দাবিতে উত্তাল দ. আফ্রিকা

কেপ টাউন, ১১ জুলাই – আদালত অবমাননার দায়ে দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক প্রেসিডেন্ট জ্যাকব জুমাকে কারাগারে পাঠানোর জেরে দেশজুড়ে সহিংস কর্মকাণ্ড চালাচ্ছে তার সমর্থকরা। রাজধানীসহ বিভিন্ন স্থানে সড়কে ভাঙচুর, গাড়িতে অগ্নিসংযোগ হয়েছে। সহিংসতায় জড়িত থাকার অভিযোগে এখন পর্যন্ত ২৮ জনকে আটক করেছে পুলিশ।

কোয়াজুলু নাটাল প্রাদেশিক হাইওয়েতে ২৩টি ট্রাকে অগ্নিসংযোগ করে ভস্মীভূত করে দিয়েছে বিক্ষুব্ধরা। শুধু তাই নয়, দোকান পাটে লুটপাটও চালাচ্ছেন তারা। ধ্বংসাত্মক কর্মকাণ্ডে সাধারণ মানুষের ভেতর আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। শুক্রবার ও শনিবার মুই নদী অঞ্চলসহ প্রদেশের বিভিন্ন জায়গা থেকে গ্রেফতার হয়েছেন অনেকে।

গত সপ্তাহে দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক প্রেসিডেন্ট জ্যাকব জুমাকে (৭৯) ১৫ মাসের কারাদণ্ডাদেশ দেয় দেশটির একটি বিশেষ আদালত। রাষ্ট্রপতি থাকাকালীন দুর্নীতির তদন্তে আদালতে উপস্থিত হওয়ার আদেশ অমান্য করায় এই দণ্ড দেওয়া হয় তাকে। দক্ষিণ আফ্রিকায় কোনও সাবেক প্রেসিডেন্টকে কারাদণ্ড দেওয়ার কোনও নজির ছিলো না। সেখানে জ্যাকব জুমাকে দণ্ড দেওয়ার পর শুরু হয় অভূতপূর্ব আইনি বিতর্ক।

পরে কারাদণ্ড ভোগ করতে পুলিশের কাছে বাধ্য হয়ে ধরা দেন জুমা। গত বুধবার কাউজুল-নাটাল প্রদেশের এস্টকর্ট কারেকশনাল সেন্টারে নিয়ে যাওয়া হয় তাকে। আত্মসমর্পণ না করলে তাকে গ্রেফতারের প্রস্তুতি নিয়েছিলেন পুলিশ। তার বিরুদ্ধে ঘুষসহ ১৯টি মামলা বিচারাধীন।

কোয়াজুলু নাটাল প্রাদেশিক পুলিশের মুখপাত্র ব্রিগেডিয়ার জেনারেল নিকার জানান, এমপাঞ্জেনি এলাকায় রাস্তাঘাট প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করায় ১৯ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ । যারা ধ্বংসাত্মক কর্মকাণ্ড চালাচ্ছে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

সূত্র : বাংলা ট্রিবিউন
এম এউ, ১১ জুলাই

Back to top button