রাজশাহী

রামেক হাসপাতালে করোনা ও উপসর্গে আরো ২২ জনের মৃত্যু

রাজশাহী, ০১ জুলাই – রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে করোনা ইউনিটে ২৪ ঘণ্টায় আরও ২২ জনের মৃত্যু হয়েছে।

বুধবার (৩০ জুন) সকাল ৮টা থেকে বৃহস্পতিবার (১ জুলাই) সকাল ৮টার মধ্যে তারা মারা যান।

এর আগে গত সোমবার সকাল ৮টা থেকে মঙ্গলবার সকাল ৮টা পর্যন্ত সময়ের মধ্যে সর্বোচ্চ ২৫ জন মারা যান। ০১ জুন সকাল থেকে বৃহস্পতিবার (০১ জুলাই) সকাল পর্যন্ত হাসপাতালে মোট ৩৭৪ জনের মৃত্যু হলো। এদের অর্ধেকের বেশি মারা গেছেন করোনার উপসর্গ নিয়ে। বাকিরা করোনা পজিটিভ অবস্থায় মারা গেছেন।

বৃহস্পতিবার (১ জুলাই) সকালে হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল শামীম ইয়াজদানী বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

হাসপাতাল পরিচালক জানান, নতুন করে মারা যাওয়া ২২ জনের মধ্যে পাঁচজন করোনা পজিটিভ ছিলেন। ১৬ জন মারা গেছেন করোনার উপসর্গ নিয়ে। এছাড়া একজন করোনা নেগেটিভ হলেও অন্যান্য শারীরিক জটিলতায় করোনা ইউনিটে মারা গেছেন।

২২ জনের মধ্যে রাজশাহীর ১৪ জন, নওগাঁর পাঁচজন এবং চাঁপাইনবাবগঞ্জ, নাটোর ও ঝিনাইদহের একজন করে রোগী ছিলেন। এদের মধ্যে রাজশাহীর তিনজন, নওগাঁর একজন ও ঝিনাইদহের একজন করোনা পজিটিভ ছিলেন। রাজশাহীর অন্য ১১ জন, নওগাঁর তিনজন এবং চাঁপাইনবাবগঞ্জ ও নাটোরের একজন করে রোগী করোনার উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন। নওগাঁর একজন করোনা নেগেটিভ ছিলেন।

হাসপাতাল পরিচালক শামীম ইয়াজদানী আরও জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন ৬৬ জন। বৃহস্পতিবার সকাল ৮টা পর্যন্ত এ হাসপাতালের করোনা ইউনিটে ভর্তি ছিলেন সর্বোচ্চ ৪৬২ জন। হাসপাতালে মোট করোনা ডেডিকেটেড শয্যার সংখ্যা এখন ৪০৫টি।

সূত্র : রাইজিংবিডি
এম এউ, ০১ জুলাই

Back to top button