মধ্যপ্রাচ্য

পারমাণবিক চুক্তি নবায়ন,ইরান নিয়ে ইসরায়েলের হুঁশিয়ারি

জেরুজালেম, ২১ জুন- পারমাণবিক চুক্তি নবায়নের আলোচনায় অগ্রগতি হওয়ায় ইরানের বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্র ও তার মিত্রদের সতর্ক করেছেন ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী নাফতালি বেন্নেত। ইরানের নতুন নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট ইব্রায়িম রায়িসির সমালোচনা করে ইসায়েলি প্রধানমন্ত্রী বলেন, তেহরান পারমাণবিক অস্ত্র চায়। তবে এই দাবি বরাবরই অস্বীকার করে আসছে ইরান।

ইরানের সঙ্গে বিশ্বের ছয় পরাশক্তির পারমাণবিক আলোচনা আপাতত স্থগিত করা হলেও এই আলোচনায় বেশ কিছু অগ্রগতি এসেছে। ২০১৫ সালে স্বাক্ষরিত চুক্তি পুনরায় কার্যকর করার লক্ষ্যে ভিয়েনায় চলমান আলোচনাটি রবিবার স্থগিত করা হয়। আলোচনায় অংশগ্রহণকারীরা নিজ নিজ দেশে ফিরে গিয়ে বিরোধপূর্ণ বিষয়গুলো অতিক্রমের জন্য পরামর্শ করবেন। বরারই এই চুক্তির বিরোধিতা করে আসছে ইসরায়েল।

ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী নাফতালি বেন্নেত মন্ত্রিসভার বৈঠকে বলেন, বিশ্ব শক্তিগুলোর জেগে ওঠার এবং কাদের সঙ্গে তারা আলোচনা করছে তা বুঝে ওঠার এটাই শেষ সুযোগ। ইরানের নতুন নির্বাচিত প্রেসিডেন্টের প্রতি ইঙ্গিত করে তিনি বলেন, ‘এক নৃশংস ফাঁসিমানবের শাসককে কোনওভাবেই ব্যাপক বিধ্বংসী অস্ত্র পেতে দেওয়া যাবে না।’

উল্লেখ্য, ইরান ও ইসরায়েল দীর্ঘদিন ধরেই ছায়া যুদ্ধে লিপ্ত রয়েছে। দুইটি দেশ সরাসরি কোনও সংঘাতে না জড়ালেও পাল্টাপাল্টি অবস্থান নিয়ে থাকে। ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহ খোমেন বরাবরই ইসরায়েল রাষ্ট্রের বিলুপ্তির কথা বলে আসছেন। ২০১৮ সালে তিনি ইসরায়েলকে মধ্যপ্রাচ্যের ক্যান্সার আক্রান্ত টিউমার আাখ্যা দিয়ে এই অঞ্চল থেকে তাকে সরিয়ে ফেলার আহ্বান জানান। অন্যদিকে ইসরায়েল ইরানকে বড় ধরনের নিরাপত্তা হুমকি হিসেবে বিবেচনা করে। তাদের দাবি তেহরান পারমাণবিক অস্ত্র তৈরি করতে চাইছে।

তথ্যসূত্র: বাংলা ট্রিবিউন
এস সি/২১ জুন

Back to top button