ক্রিকেট

কোহলি-রাহানে ভারতের প্রতিরোধ

সাউদাম্পটন, ২০ জুন – আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনাল ম্যাচটিতে দুই দলের চেয়ে বৃষ্টির আধিপত্যই বেশি দেখা গেছে। প্রথমদিনের পুরোটাই তিন সেশনই বৃষ্টির দাপটে একটি বলও গড়ানো সম্ভব হয়নি। দ্বিতীয় দিন মাঠে খেলা গড়ালেও শেষ সেশনে আলোক স্বল্পতায় প্রায় ৩৪ ওভার খেলা হয়নি। যুতটুকুই খেলা হয়েছে, সেখানে প্রথম সেশনে নিউজিল্যান্ডের দাপটই বেশি ছিল।

তবে দিন শেষে বিরাট কোহলি (৪৪*) ও অজিঙ্কা রাহানের (২৯*) দৃঢ়তায় ভারত ঘুরে দাঁড়িয়েছে। ভারতের সংগ্রহ তিন উইকেট হারিয়ে ১৪৬ রান।

শনিবার সাউদাম্পটনের দ্য রোজ বোল স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ সময় বিকেল ৩টায় টস জিতে ব্যাটিং করতে নেমে সাবধানি শুরু করেছিল ভারত। রোহিত শর্মা-শুভমান গিল ওপেনিং জুটিতে খেলছিলেন দারুণ। কিউই পেস আক্রমণকে সামলে এগোচ্ছিলেন বেশ ভালোভাবেই। তবে লাঞ্চ বিরতিতে যাওয়ার আগে ১ রানের ব্যাবধানে ২ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে যায় ভারত। তখন ভারতের রান ছিলো ২৮ ওভারে ২ উইকেট হারিয়ে ৬৯ রান। রোহিত শর্মাকে তুলে নেন কিউই পেসার কাইল জেমিসন। স্লিপে ডাইভ দিয়ে তার ক্যাচ নেন টিম সাউদি। তিন ওভার পর আরেক ওপেনার শুবমান গিলকে (২৮) তুলে নেন নিল ওয়াগনার।

চেতশ্বর পূজারা (০) ও বিরাট কোহলি (৬) রান নিয়ে দ্বিতীয় সেশন শুরু করেছিলেন। লাঞ্চের পর এসে প্রথম এক ঘন্টা ক্রিজ আকড়ে ছিলেন পূজারা। নিজের সহজাত ব্যাটিং করে ৮৫ মিনিট ক্রিজে থাকেন। ৫৪ বলে পূজারারা ৮ রানের ধৈর্যশীল ইনিংসের সমাপ্তি ঘটান কিউই পেসার ট্রেন্ট বোল্ট। তাকে এলবিডব্লিউর ফাঁদে ফেলে সাজঘরে ফেরান এই কিউই পেসার। ৩৬তম বলে রানের খাতা খোলেন পুজারা। তার বিদায়ে বড় বিপদে পড়তে যাচ্ছিল ভারত। যদিও চতুর্থ উইকেটে অধিনায়ক বিরাট কোহলি ও অজিঙ্কা রাহানের দায়িত্বশীল ব্যাটিংয়ে সেটা আর হয়নি। দুইজন ৫৮ রানের অবিচ্ছিন্ন জুটি গড়েছেন।

চা বিরতির পর দুই দফা আলোক স্বল্পতায় খেলা বন্ধ হয়। মাঝে ৬ ওভার হওয়ার পর আবারও আলোক স্বল্পতায় ম্যাচ বন্ধ হয়ে যায়। এই দফায় উন্নতি না হওয়াতে দিনের খেলা পরিত্যক্ত ঘোষণা করেন ম্যাচ রেফারি। দিনশেষে কোহলি ১২৪ বলে ৪৪ এবং রাহানে ৭৯ বলে ২৯ রান নিয়ে অপরাজিত আছেন।

নিউজিল্যান্ডে ট্রেন্ট বোল্ট, কাইল জেমিসন ও নিল ওয়াগনার প্রত্যেকে একটি করে উইকেট নিয়েছেন।

সূত্র : বাংলা ট্রিবিউন
এন এইচ, ২০ জুন

Back to top button