উত্তর আমেরিকা

পাকিস্তানি বংশোদ্ভূত নারীকে ট্রেড কমিশনের চেয়ারপার্সন করলেন বাইডেন

ওয়াশিংটন, ১৮ জুন – যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল ট্রেড কমিশনের (এফটিসি) নেতৃত্ব দেওয়ার জন্য পাকিস্তানি-আমেরিকান লিনা খানের নাম ঘোষণা করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। এর মধ্য দিয়ে নিয়ন্ত্রক কর্তৃপক্ষের শীর্ষ স্থানটি একজন বিশিষ্ট বিগ টেক সমালোচককে দিলেন তিনি।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত মঙ্গলবার মার্কিন সিনেটে শুনানি শুরুর পর ওয়াশিংটনের অন্যতম শক্তিশালী নিয়ন্ত্রক অবস্থানে লিনা খানকে উন্নীত করার পদক্ষেপটি ঘোষণা করেন ডেমোক্র্যোট সিনেটর অ্যামি ক্লুবুচার। সিনেটে ৬৯-২৮ দ্বিপক্ষীয় ভোটে লিনা খান কমিশনার হিসেবে নিশ্চিত হবার পরপরই এ ঘোষণাটি আসে।

ফলে এখন থেকে পাঁচ সদস্যের কমিশনে ডেমোক্র্যাটদের সংখ্যাগরিষ্ঠতা থাকবে। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, কমিশনের মাধ্যমে মিসেস খান সম্ভবত প্রযুক্তি সংস্থাগুলোর একচেটিয়া ক্ষমতার অপব্যবহারের অভিযোগ নিয়ে আরও আক্রমণাত্মক পরীক্ষার দিকে পরিচালিত করবেন।

ডেমোক্র্যাটিক পার্টির প্রগতিশীল শাখার এলিজাবেথ ওয়ারেন বলেন, মিসেস খান এফটিসির নেতৃত্ব দিচ্ছেন, এটা অসাধারণ সংবাদ। এক বিবৃতিতে বলেন, গুগল, অ্যাপল, ফেসবুক এবং অ্যামাজনের মতো জায়ান্ট টেক সংস্থাগুলো যে ক্রমবর্ধমান তদন্তের মুখোমুখি হচ্ছে তার প্রাপ্য এবং একীকরণ আমেরিকান শিল্পে প্রতিযোগিতা বন্ধ করে দিচ্ছে।

যুক্তরাজ্যের লন্ডনে এক পাকিস্তানি পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন লিনা খান। যখন ১১ বছর বয়স তখন যুক্তরাষ্ট্রে পাড়ি জমায় তার পরিবার। তিনি ইয়েল ইউনিভার্সিটি থেকে আইন বিষয়ে পড়াশোনা করেন।

পাকিস্তানি বংশোদ্ভূত নারীকে ট্রেড কমিশনের চেয়ারপার্সন করলেন বাইডেন

গত মঙ্গলবার শপথগ্রহণ করেছেন লিনা খান। এর মধ্য দিয়ে তিনি এফটিসির ইতিহাসে সবচেয়ে কম বয়সী চেয়ারপার্সন নির্বাচিত হলেন।

এক বিবৃতিতে লিনা খান বলেন, জনগণকে কর্পোরেট প্রতিষ্ঠানগুলোর অপব্যবহার থেকে রক্ষা করতে সহকর্মীদের সঙ্গে কাজ করার অপেক্ষায় রয়েছি।

সূত্র : ইত্তেফাক
এন এইচ, ১৮ জুন

Back to top button