দক্ষিণ এশিয়া

অর্থনীতি পুনরুদ্ধারে ভারতে খুলে দেয়া হয়েছে তাজমহলসহ বিভিন্ন পর্যটন কেন্দ্র

নয়াদিল্লি, ১৭ জুন- বৈশ্বিক করোনা মহামারিতে নতুন ভ্যারিয়েন্টের কারণে ব্যাপক ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছে ভারত। করোনাভাইরাসের নতুন ভ্যারিয়েন্টের পাশাপাশি ব্ল্যাক ফাঙ্গাসেও বেড়েছে আক্রান্ত ও নিহতের সংখ্যা। সব মিলিয়ে ভারতে ভয়াবহ এক পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে।

ভারতে করোনাভাইরাসের সেকেন্ড ওয়েব শুরু হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে বন্ধ করে দেয়া হয় সকল ধরনের পর্যটন স্থান। তবে বর্তমান পরিস্থিতি কিছুটা উন্নতি হওয়ায় আবারও খুলে দেয়া হচ্ছে পর্যটন স্থানগুলো।

দীর্ঘদিন বন্ধ থাকার পর খুলে দেয়া হচ্ছে ভারতের ঐতিহাসিক স্থান তাজমহল। করোনা মহামারিতে ভারতের অর্থনীতিতে ধস নামায় অর্থনীতি পুনরুদ্ধারে তাজমহল খুলে দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে জানান দেশটির উত্তর প্রদেশের স্থানীয় সরকার।

কঠোর স্বাস্থ্যবিধি মেনে তাজমহলের ভেতর পর্যটকদের প্রবেশ করানো হবে বলে জানানো হয়েছে। প্রতিদিন ৬৫০ জন কে ভেতরে ঢুকতে দেয়া হবে বলে জানান আগ্রার জেলা ম্যাজিস্ট্রেট প্রভু সাহা। তিনি আরো জানান, করোনাভাইরাসের আগে প্রতিবছর এই তাজমহলে প্রায় ৭০ থেকে ৮০ লাখ পর্যটক ঘুরতে আসত। এছাড়া প্রতিদিন প্রায় ২০ হাজারের মতো পর্যটকদের আনোগোনা হতো এ তাজমহলে। কিন্তু করোনাভাইরাসের কারণে ভারতের পর্যটন খাতে ধস নেমেছে। শুধু তাজমহলই নয় খুলে দেয়া হচ্ছে লালকেল্লা-কুতুব মিনারও।

বুধবারও (১৬ জুন) দেশটির উত্তর প্রদেশে করোনাভাইরাসে ২৭০ জন নতুন করে আক্রান্তসহ ৫৬ জনের মৃত্যু হয়। এছাড়া এদিন দেশটিতে ৬২ হাজার ২২৪ জনের করোনা শনাক্ত এবং ২ হাজার ৫৪২ জনের মৃত্যু হয়েছে।

প্রসঙ্গত, করোনাভাইরাসের ভারতীয় ধরন দেখা দেয়ার পর দেশটিতে ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা জারি করে যুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা, ফ্রন্স সহ ডজন খানেক দেশ।

তথ্যসূত্র: আরটিভি
এস সি/১৭ জুন

Back to top button