ঢালিউড

‘জাস্টিস ফর পরীমনি’ হ্যাশট্যাগে সোচ্চার শিল্পী-নির্মাতারা

ঢাকা, ১৪ জুন – ঢাকাই সিনেমার চিত্রনায়িকা পরীমনি এক ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে ধর্ষণ ও হত্যা চেষ্টার অভিযোগ আনেন। সেই অভিযোগে গতকাল রাত থেকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এই ইস্যু এখন তোলপাড়। পরীর এমন অভিযোগে অভিযুক্তদের বিচারের দাবিতে ফেসবুকে সোচ্চার হয়েছেন চলচ্চিত্র, টিভি নাটকের নির্মাতা ও অভিনয়শিল্পীরা।

সহকর্মীর উপর এমন অন্যায়ের প্রতিবাদ জানিয়ে ‘জাস্টিস ফর পরীমনি’ হ্যাশট্যাগে ফেসবুকে সোচ্চার হয়েছেন জয়া আহসান, আশনা হাবিব ভাবনা, গিয়াসউদ্দিন সেলিম, উর্মিলা শ্রাবন্তী কর, মেহজাবীন চৌধুরী, সায়মন সাদিক, অনিমেষ আইচ, নাবিলা, নওশাবা আহমেদসহ বেশ কয়েকজন অভিনয়শিল্পী ও নির্মাতা।

জয়া আহসান লিখেছেন, “পরীমনির খবরটি শোনার পর থেকে বেদনা ও ধিক্কারে মনটা ভরে উঠেছে। আমি কষ্ট পাচ্ছি মানুষ হিসেবে, মেয়ে হিসেবে, অভিনয়–জগতের একজন সদস্য হিসেবে।

“একবিংশ শতকের অনেকটা পথ পার হয়ে এসে এখনো মেয়েদের এমন লাঞ্ছনা দেখতে হবে? কোনো মানুষ, কোনো মেয়ের সঙ্গে এমন আচরণ করার মন, মানসিকতা বা দুঃসাহস কোত্থেকে আসে? যে চলচ্চিত্রশিল্পকে রক্তে–ঘামে আমরা তিল তিল করে গড়ে তুলছি, তা এতই নাজুক, এতই খেলো?”

জয়া লিখেছেন, “এ ঘটনা আমরা তলা পর্যন্ত বুঝতে চাই। আমরা দেখতে চাই, এমন দুর্বৃত্তপনার বিচার হয়েছে। দেখতে চাই, কোনো মেয়ে—তা সে যে–ই হোক—তার সঙ্গে এমন আচরণের অবসান হয়েছে।”

আশনা হাবিব ভাবনা লিখেছেন, “একজন নারী হিসেবে,একজন সহকর্মী হিসেবে পরীর এই কান্না নিতে ভীষণ কষ্ট হচ্ছে। সম্মান একটা পিঁপড়ারও আছে। পরীমনি একজন নায়িকা, বাংলা সিনেমার নায়িকা । তো! তার সাথে যা খুশি তাই করা যাবে। এই পিতৃতান্ত্রিক সমাজে যত বড় হচ্ছি তত নিজেকে অতি ক্ষুদ্র ভাবে দেখতে পাচ্ছি। একজন নারী সে ঘরের বউ হোক, পার্লারে কাজ করা মেয়ে হোক, বিশাল কাচের রুমে বসে অফিস করা মেয়ে হোক, গার্মেন্টস কর্মী হোক, ডাক্তার হোক, লেখক হোক আর যদি নায়িকা হয় তাহলে তো কথাই নাই। সবাইকে অসম্মান সহ্য করতে হয়। পরীর পাশে আছি। পরী তুমি ভাঙবে না প্লিজ।”

মেহজাবীন চৌধুরী লিখেন, “স্টপ ভিক্টিম ব্লেমিং!”

ঊর্মিলা শ্রাবন্তী কর লিখেন, “আমরা কোথায় আছি! ‌এ কোন দেশে আমরা বাস করছি!!! স্বনামধন্য চিত্রনায়িকা পরীমনির সাথে যে অন্যায় হয়েছে ,তার তীব্র প্রতিবাদ জানাই ও দোষী ব্যক্তিদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবী করছি । নারীর প্রতি কোন সহিংসতা ও অত্যাচার সহ্য করবো না – মানবো না।”

পরীমনি অভিনীত ‘স্বপ্নজাল’ চলচ্চিত্রের নির্মাতা গিয়াসউদ্দিন সেলিম এক ভিডিওবার্তায় নিন্দা জানিয়েছেন। তিনি বলেন, “সাম্প্রতিক সময়ে দেখছি, টাকার গরমের কাছে আইন ও আদেশ গলে গলে যাচ্ছে। আমরা উন্নয়নের মহাসড়কে উঠেছি এখনও যদি আইনশৃঙ্খলা ঠিক না করি তাহলে পুরো জাতি তলিয়ে যাবে। আমি এর সঠিক বিচার চাই।”

ছোটপর্দার অভিনেত্রী ঊর্মিলা শ্রাবন্তী কর লিখেছেন, আমরা কোথায় আছি! এ কোন দেশে আমরা বাস করছি! স্বনামধন্য চিত্রনায়িকা পরীমনির সাথে যে অন্যায় হয়েছে, তার তীব্র প্রতিবাদ জানাই ও দোষী ব্যক্তিদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবী করছি। নারীর প্রতি কোনো সহিংসতা ও অত্যাচার সহ্য করব না – মানব না।”

রোববার রাতে নিজের বাসায় সংবাদ সম্মেলন করে অভিযোগ জানানোর পর ধর্ষণচেষ্টা, হত্যাচেষ্টা ও মারধরের অভিযোগে সোমবার সাভার থানায় মামলা করেছেন চিত্রনায়িকা পরীমনি। মামলায় উত্তরা ক্লাবের সাবেক সভাপতি নাসির ইউ মাহমুদসহ ছয়জনকে আসামি করা হয়েছে। মামলা করার পর আজ অভিযুক্তদের মধ্যে ৫ জনকে গ্রেপ্তার করে গোয়েন্দা পুলিশ।

 

সূত্র: বাংলাদেশ জার্নাল
এম ইউ/১৪ জুন ২০২১

 

Back to top button