কক্সবাজার

‘গোপন পিন’ পরিবর্তন করে উপবৃত্তির টাকা আত্মসাৎ, দুই শিক্ষক আটক

কক্সবাজার, ১৪ জুন- কক্সবাজারের মহেশখালীতে শিক্ষার্থীদের গোপন পিন পরিবর্তন করে সরকারের দেয়া উপবৃত্তির টাকা আত্মসাতের অভিযোগে দুই শিক্ষককে আটক করেছে পুলিশ।

আটকরা হলেন তাজিয়াকাটা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের খণ্ডকালীন শিক্ষক ফয়সাল এবং নাসির। তারা দুইজন পারস্পরিক যোগসাজসে কোমলমতি শিক্ষার্থীদের মোবাইল একাউন্টের টাকা আত্মসাৎ করেন।

সুনির্দিষ্ট তথ্যের ভিত্তিতে রোববার সকালে দুই শিক্ষককে আটক করা হয়েছে। এ সময় তাদের কাছ থেকে নগদ ৬৫ হাজার টাকা উদ্ধার করেছে পুলিশ।
বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন মহেশখালী থানার ওসি আবদুল হাই।

তিনি বলেন, প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিশু থেকে পঞ্চম শ্রেণি পর্যন্ত উপবৃত্তির টাকা প্রদান করছে সরকার। একটি নির্দিষ্ট গোপন পিন নম্বরে সেই টাকাগুলো পৌঁছে দেয়া হয়। এখানে শিশু, শিশুর বাবা-মায়ের আবেগ জড়িত রয়েছে। কিন্তু কোমলমতি শিশুদের টাকাগুলো আত্মসাতের ফন্দি করে একটি চক্র। তাদের দুইজনকে আটক করা হয়েছে।

প্রাথমিকভাবে নগদ ৬৫ হাজার টাকা উদ্ধার করা হয়েছে। আরো কিছু টাকা তাদের মোবাইলে থাকতে পারে। তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে বলে জানান ওসি।

সরকারের উপবৃত্তির টাকা দেয়ার মাধ্যম ‘পিন নম্বর’ যেন কাউকে না দেয়, সে বিষয়ে অভিভাবক ও শিক্ষার্থীদের প্রতি অনুরোধ করেন ওসি মো. আবদুল হাই।

তথ্যসূত্র: নতুন সময
এস সি/১৪ জুন

Back to top button