এশিয়া

নেপালের প্রধানমন্ত্রীকে হত্যার হুমকি

কাঠমন্ডু, ১৩ জুন- নেপালের প্রধানমন্ত্রী কেপি শর্মা ওলির নেতৃত্বাধীন সরকারের সমালোচনা করে তাকে হত্যার হুমকি দিয়েছেন দেশটির এক বিরোধী দলীয় প্রাদেশিক আইনপ্রণেতা। হুমকিদাতা নেতা হলেন বাগমাতি প্রদেশের নেপালি কংগ্রেস পার্টি থেকে নির্বাচিত আইনপ্রণেতা নরোত্তম বৈদ্য।

খবরে বলা হয়েছে, এক বৈঠকে নরোত্তম বলেছেন, ওলির সরকার সবকিছুতেই আপস করছে। ফলে জাতিকে বাঁচাতে নথুরাম গডসের মতো একজন আততায়ী প্রয়োজন। উল্লেখ্য, নথুরাম গডসে ভারতের মহাত্মা গান্ধীর হত্যাকারী।

প্রাদেশিক পরিষদের বৈঠকে তিনি বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী ওলি সব ইস্যুতে সমঝোতা ও চুক্তি করে ক্ষমতায় থাকতে চাইছেন। ওলিকে যদি এমনভাবে স্বাধীন রাখা হয় তাহলে দেশ ভেঙে পড়ছে। তাই, জাতিকে বাঁচাতে নথুরাম গডসের মতো আততায়ীর প্রয়োজন।

নরোত্তম বৈদ্যের এই বক্তব্যের সমালোচনা করেছে নেপালি কংগ্রেস থেকে শুরু করে দেশটির সব রাজনৈতিক দল।

নেপালি কংগ্রেসের এক সিনিয়র নেতা জানান, দল থেকে এরই মধ্যে নরোত্তমকে তার বক্তব্য প্রত্যাহার ও প্রধানমন্ত্রীর কাছে ক্ষমা চাওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ওই নেতা বলেন, এটি ছিল আবেগজনিত ভুল। তার এমনটি বলা উচিত হয়নি। এটি উদ্দেশ্যপ্রণোদিত নয়। ওই নেতা হয়ত ভেবেছিলেন সাম্প্রতিক রাজনৈতিক পরিস্থিতির কারণে ওলি অনেক বেশি কিছূ করছেন। এই বিতর্কিত মন্তব্যের জন্য ওই নেতার সমালোচনা করেছি আমি।

তিনি আরও জানান, নরোত্তম ক্ষমা চাইবেন তাই কোনও দলের পক্ষ থেকে কোন পদক্ষেপের প্রয়োজনীয়তা নেই।

সিপিএন-ইউএমএল নেতা প্রদীপ গায়ওয়ালি এক বিবৃতিতে বলেছেন, বাগমাতি প্রাদেশিক পরিষদের সদস্যের বক্তব্যটি চরম আপত্তিজনক। আমাদের দল ফৌজদারি পদক্ষেপ চায়।

তথ্যসূত্র: বাংলা ট্রিবিউন
এস সি/১৩ জুন

 

Back to top button