ফুটবল

খেলেতে খেলতে হঠাৎ অজ্ঞান এরিকসেন, খেলাই স্থগিত

দুবাই, ১৩ জুন – ফিনল্যান্ডের বিপক্ষে ডেনমার্কের ম্যাচ চলাকালীন হঠাৎ মাঠে লুটিয়ে পড়েন ক্রিশ্চিয়ান এরিকসেন। বেশ কিছুক্ষণ ধরে চিকিৎসা চলার পরও পরিস্থিতির দৃশ্যগত তেমন উন্নতি হয়নি। পরিত্যক্ত হয়েছে ম্যাচ। হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে এরিকসেনকে।

কোপেনহেগেনের পারকেন স্টেডিয়ামে শনিবার ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপের ‘বি’ গ্রুপে ম্যাচের ৪৩তম মিনিটে ঘটনাটি ঘটে। হাঁটতে হাঁটতে পড়ে যান এরিকসেন।

সবার চিন্তার মাঝেই মাঠ থেকে মিলেছে ইতিবাচক খবর। স্ট্রেচারে করে মাঠ থেকে বাইরে নেওয়ার সময়েই জ্ঞান ফিরেছে এরিকসেনের। তবে সতর্কতাস্বরূপ হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে ড্যানিশ মিডফিল্ডারকে।

আনুষ্ঠানিকভাবে এ খবর জানিয়েছে উয়েফা ও ডেনমার্ক ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন।

এদিকে এরিকসেনের জ্ঞান হারানোর ঘটনায় জরুরি ভিত্তিতে স্থগিত করা হয়েছে ম্যাচ। ফিনল্যান্ডের আক্রমণভাগের সামনে একটি থ্রো-ইন পেয়েছিল ডেনমার্ক। কাছাকাছি থাকায় এরিকসেনের উদ্দেশ্যেই থ্রো-ইনটি করেন সতীর্থ খেলোয়াড়। কিন্তু সেই বল আর রিসিভ করতে পারেননি এরিকসেন।

থ্রো-ইন থেকে আসা বলটি গায়ে এসে লাগার আগেই জ্ঞান হারিয়ে নিথরভাবে মাটিতে আছড়ে পড়েন এরিকসেন। সঙ্গে সঙ্গে মেডিকেল টিমকে ডাকেন ম্যাচের রেফারি ও তার সতীর্থ খেলোয়াড়রা। প্রাথমিকভাবে সিপিআর দিয়ে জ্ঞান ফেরানোর চেষ্টা করে মেডিকেল টিম।

কিন্তু তাতে কোনো কাজ হয়নি। প্রায় ১০ মিনিট ধরে সিপিআর ও অন্যান্য প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়ার পরেও জ্ঞান ফেরেনি এরিকসেনের। তাই স্ট্রেচারে করে মাঠের বাইরে নিয়ে যাওয়া হয় তাকে। মাঠ ছাড়ার সময় মুখে অক্সিজেন মাস্ক নিয়েই ওপরের দিকে তাকান এরিকসেন, হাত নেড়ে সাড়াও দেন।

এরিকসেন মাঠের লুটিয়ে পড়ার ঘটনায় ডেনমার্কের খেলোয়াড় ও গ্যালারিতে থাকা দর্শকদের বেশিরভাগই কান্নায় ভেঙে পড়েন। এ জরুরি অবস্থার কারণে ম্যাচটি আর না চালানোর সিদ্ধান্ত নেয় আয়োজকরা।

মাঠের খেলা স্থগিত হওয়ার আগে হওয়া ৪৩ মিনিটে গোলশূন্য ছিল দুই দলই। তবে ম্যাচে একচ্ছত্র আধিপত্য ছিল ডেনমার্কেরই।

সূত্র : প্রতিদিনের সংবাদ
এন এইচ, ১৩ জুন

Back to top button