জানা-অজানা

বিশ্বের সেরা ধনীদের জীবনের কিছু অভ্যাস

বিশ্বসেরা ধনী মানুষদের প্রতি সবসময়েই আমাদের একটা কৌতূহল কাজ করে। কেমন মানুষ তারা? কিভাবে কাটে তাদের জীবন? অদ্ভুত হলেও সত্যি যে, ধনী মানুষদের জীবনযাত্রায় অদ্ভুত কিছু অভ্যাস পালন করতে দেখা যায়। এসব অভ্যাস পালন করার কারণে যে তারা ধনী হয়েছেন তা হয়তো নয়, কিন্তু তারপরেও আপনি নিজে এই অভ্যাসগুলো রপ্ত করার চেষ্টা করতেই পারেন! আসুন দেখে নেওয়া যাক এমনই কিছু অভ্যাসের নমুনা।

১) রুটিনে বাঁধা জীবনঃ
মিলিওনিয়ার এবং বিলিওনিয়ার সবাই কমবেশি রুটিন মেনে জীবনযাপন করে থাকেন। এই রুটিনের মাঝে থাকে সাফল্যের বেশকিছু সুত্র। দরিদ্র বা সাধারণ আয়ের মানুষদের সাথে এদের বেশ বড় পার্থক্য দেখা যায় এখানেই। বেশিরভাগ ধনী মানুষেরাই একটা কাজের তালিকা প্রস্তুত করে রাখেন ও সেই অনুযায়ী কাজ করেন। তারা কাজে যাবার কমপক্ষে তিন ঘণ্টা আগে ঘুম থেকে ওঠেন, দিনে আধাঘণ্টা বা তার বেশি সময় বই পড়েন, সপ্তাহে নির্দিষ্ট একটি সময় ব্যয় করেন ব্যবসায়ের জন্য মানুষের সাথে নতুন নতুন সংযোগ সৃষ্টি করতে।

২) ভালো স্বাস্থ্য, ভালো সম্পদঃ
শরীর খারাপ থাকলে যে আপনি ধনী হতে পারবেন না এটা ধরেই নেওয়া যায়। ধনী মানুষেরা বেশিরভাগ সময়েই ব্যায়াম করে স্বাস্থ্য ভালো রাখার চেষ্টা করেন। অন্যদের তুলনায় জাংক ফুড খাবার মাত্রাও তাদের মাঝে কম দেখা যায়।

আরও পড়ুন-  কোন স্বপ্নের অর্থ কী?

৩) টিভি দেখাঃ
টিভি দেখার অনেক উপকারিতা আছে বটে, কিন্তু বেশি সময় টিভির সামনে থাকলে যে কাজের বারোটা বেজে যাবে তা ভালো করেই জানেন এই ধনবান ব্যক্তিরা। তারা দৈনিক টিভি দেখেন বটে, কিন্তু এক ঘণ্টা বা তারও কম। আর রিয়েলিটি শো দেখেন না বেশিরভাগই।

৪) সন্তানের জীবন গড়ে তোলাঃ
ধনী মানুষেরা নিজেরা সফল হয়েই সন্তুষ্ট নন, তারা নিজেদের সন্তানদের জীবনকেও সুখি করে রেখে যেতে চান। তাই দেখা যায়, তারা নিজেদের সন্তানকেও নিয়মিত শিখিয়ে দিচ্ছেন সাফল্যের সূত্রগুলো। তাদেরকে উৎসাহ দিচ্ছেন সমাজসেবা করার, আর নিয়মিত ভালো ও শিক্ষামূলক বই পড়ার তাগিদ দিয়ে যাচ্ছেন।

৫) লক্ষ্য ঠিক করে নেওয়াঃ
লক্ষ্য ঠিক না করলে সেখানে পৌঁছাবেন কি করে? তারা জীবনের শুরু থেকেই সাফল্যের জন্য নির্দিষ্ট লক্ষ্য অনুসরন করতে থাকেন। একটা একটা করে লক্ষ্য পূরণ করতে থাকেন তারা, এ কারণে নিয়মিত নিজেদের লক্ষ্যগুলোকে টুকে রাখেন কাগজে। সারা জীবন শিক্ষা অর্জন করতে থাকেন তারা। আর লক্ষ্য পুরনের জন্য গড়ে তোলেন ভালো সব অভ্যাস, বাদ দেন খারাপ অভ্যাস।

Back to top button