বিচিত্রতা

উদ্ধার হল গর্ভবতী কঙ্কাল!

৩৭০০ বছর ধরে মাটির তলায় চিরঘুমে শায়িত মা ও সন্তান। মাটি খুঁড়ে মিলল তাদের কঙ্কাল। ঘটনা মিশরের। প্রত্নতাত্ত্বিকদের মতে, দু’টি কঙ্কালের একটি বছর পঁচিশের এক যুবতীর। অন্য কঙ্কালটি তার গর্ভস্থ ভ্রুণের। সম্ভবত ওই মহিলা আসন্নপ্রসবা ছিলেন। সেই সময়ই মৃত্যু হয় তার।

আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম ‘লাইভসায়েন্স’-এ প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে জানা যায়, মিশর রাজধানী কায়রো থেকে ৫৩০ মাইল দূরে অবস্থিত আসওয়ান নামের এক স্থান থেকে ওই কঙ্কাল দু’টির সন্ধান পাওয়া গিয়েছে।

ইয়েল বিশ্ববিদ্যালয় ও বোলোনা বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষক দল ওই কঙ্কালগুলো উদ্ধার করেন। ওই গর্ভবতী মহিলাকে ১৭৫০ থেকে ১৫৫০ খ্রিস্ট পূর্বাব্দের মধ্যবর্তী কোনও এক সময়ে কবর দেওয়া হয়েছিল বলে জানিয়েছে মিশরের সুপ্রিম কাউন্সিল অফ অ্যান্টিকিউটিস-এর সচিব মোস্তাফা ওয়াজিরি।

কীভাবে মৃত্যু হয়েছিল ওই মহিলার? জবাবে জানালেন, তার কোমরের হাড়ে সমস্যা ছিল। সেটিকে হয়তো ঠিকভাবে শুশ্রুষা করা সম্ভব হয়নি। সেই কারণেই সন্তানের জন্ম দেওয়ার সময়ে সমস্যায় পড়তে হয়েছিল তাকে। আর তাই শেষমেশ মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়তে হয়েছিল।

মহিলার শরীরটি একটি চামড়ার ভিতরে মোড়ানো ছিল। কবরের মধ্যে রাখা ছিল একটি পাত্র ও অস্ট্রিচের ডিম দিয়ে বানানো জপমালা। হাজার হাজার বছর পেরিয়ে এসে আবার পৃথিবীর আলো পড়ল কবেকার মৃত শরীরের কাঠামোয়। আধুনিক পৃথিবীর বুকে ফুটে উঠল কবেকার এক অজ্ঞাত নারীর প্রসবকালীন মৃত্যুর করুণ ছবি।

এম এন / ০৪ জুন

Back to top button