পশ্চিমবঙ্গ

বলবিন্দরের মুক্তি নিয়ে আশ্বাস, ধন্যবাদ বিজেপি নেতার স্ত্রীর

বলবিন্দরের মুক্তি নিয়ে আশ্বাস, ধন্যবাদ বিজেপি নেতার স্ত্রীর

কলকাতা, ১৭ জুলাই- সব কিছু ঠিকঠাক চললে শীঘ্রই নবান্ন অভিযানে অস্ত্র-সহ ধৃত বিজেপি নেতা বলবিন্দর সিংয়ের বিরুদ্ধে চলা মামলা তুলে নেবে রাজ্য পুলিশ। সোমবারের মধ্যেই তাঁর মুক্তি নিয়ে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ করা হবে, বলবিন্দরের স্ত্রীকে এমনই আশ্বাস দিয়েছেন পুলিশ আধিকারিকরা। পুলিশকর্তাদের এই আশ্বাসে স্বভাবতই খুশি বলবিন্দরের স্ত্রী।

শনিবার দুপুরে হাওড়া থানায় গিয়েছিলেন বিজেপি নেতা বলবিন্দর সিংয়ের স্ত্রী ও পুত্র। স্বামীর মুক্তি নিয়ে পুলিশকর্তাদের সঙ্গে কথা বলেন বলবিন্দরের স্ত্রী। পুলিশকর্তারাও তাঁকে আশ্বস্ত করেছেন। সোমবারের মধ্যে বলবিন্দরের সমস্যা মেটানোর প্রশাসনিক আশ্বাসে রাজ্য সরকারকে ধন্যবাদ জানিয়েছেবন বিজেপি নেতার স্ত্রী। ফের সুযোগ পেলে পশ্চিমবঙ্গে কাজ করবেন বলবিন্দর, সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলার সময় এদিন জানিয়েছেন বলবিন্দরের স্ত্রী।

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ধন্যবাদ জানানোর পাশাপাশি রাজ্যে দুর্গাপুজো দেখারও ইচ্ছা প্রকাশ করেন বলবিন্দর পত্নী। শনিবার বেলা পৌনে দুটো নাগাদ হাওড়া থানায় আসেন বিজেপির নবান্ন অভিযানে আগ্নেয়াস্ত্র-সহ ধৃত বলবিন্দর সিংহের স্ত্রী ও পুত্র। সাংবাদিকদের বলবিন্দর-পত্নী বলেন, ‘‘প্রশাসনের উপর আস্থা আছে। কলকাতার দুর্গাপুজো দেখার ইচ্ছে আছে। সময় পেলে অবশ্যই পুজো দেখব।’’

বিজেপির নবান্ন অভিযানের দিন মিছিলেই ছিলেন বিজেপি নেতা বলবিন্দর সিং। তাঁকে আগ্নেয়াস্ত্র-সহ গ্রেফতার করে পুলিশ। গ্রেফতারের সময় ধস্তাধস্তির জেরে তাঁর পাগড়িটি খুলে যায়। যা নিয়ে পরে বিতর্ক তৈরি হয়। বিতর্কে জল ঢালতে শেষমেশ আসরে নামতে হয় রাজ্যের স্বরাষ্ট্র দফতরকেও। পঞ্জাবিদের একাধিক সংগঠন বলবিন্দরের মুক্তির দাবিতে সরব হন। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কেও বলবিন্দরকে মুক্তি দেওয়া নিয়ে আবেদন করা হয়।

আরও পড়ুন : কোনও ঠিকাদারি সংস্থা দিয়ে সংগঠন চাঙ্গা করা যায় না : তৃণমূল বিধায়ক

শেষমেশ রাজ্য পুলিশের শীর্ষ কর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করেন রাজ্য পুলিশের ডিজি বীরেন্দ্র। সেখানেই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় বলবিন্দরের বিরুদ্ধে থাকা অভিযোগ তুলে নেওয়া হবে। স্বামীকে না ছাড়লে নবান্নের সামনে ছেলেকে সঙ্গে নিয়ে অনশনে বসার হুমকি দিয়েছিলেন বলবিন্দরের স্ত্রী করমজিৎ কউর।

তবে পুলিশি আশ্বাসে আপাতত সেই পরিকল্পনা তিনি প্রত্যাহার করেছেন। এদিকে, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নিজেও বলবিন্দরকে নিয়ে নরম মনোভাব নিয়েছেন। ইতিমধ্যেই দুর্গাপুজো উপলক্ষে বলবিন্দরের স্ত্রী করমজিৎ কউরকে তিনি সলওয়ার সুট উপহার দিয়েছেন বলে জানা গিয়েছে।

সূত্র: কলকাতা২৪x৭

আর/০৮:১৪/১৭ অক্টোবর

Comments

Back to top button