কক্সবাজার

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ইয়াবা ও দেশিয় অস্ত্রসহ ৩ রোহিঙ্গা আটক

কক্সবাজার, ১৭ অক্টোবর- ৪০০টি ইয়াবা ও তিনটি দেশিয় তৈরি রামদা/কিরিচসহ ৩ রোহিঙ্গাকে আটক করেছে আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন-১৬ (এপিবিএন)।

তারা হলেন- বালুখালী ৯ নং ক্যাম্পের ব্লক-বি/৯ এর হামিদ হোসেনের ছেলে মুন্না গ্রুপের সদস্য ছৈয়দুল আমিন (২৫), শালবাগান ক্যাম্প ব্লক-এফ/৫ এর আব্দুস সালামের ছেলে কবির মাঝি (৫২) এবং নয়াপাড়া রেজিস্ট্রার্ড ক্যাম্প ব্লক-ই, শেড-৯৭৪ এর সামচুল আলমের ছেলে সালমানশাহ গ্রুপের সদস্য নুরুন নবী (২৯), যার এমআরসি-০০৩১০। শুক্রবার (১৬ অক্টোবর) সাড়ে ৫ টার দিকে নয়াপাড়া রেজিস্ট্রার্ড ক্যাম্প ব্লক-এইচ/এফ থেকে তাদের প্রেপ্তার করা হয়।

আরও পড়ুন: চার যুগের বসতি হারানোর আতঙ্কে দেড়শ’ পরিবার

পুলিশ পরিদর্শক নিরস্ত্র রকিবুল ইসলাম এর নেতৃত্বে এসআই মাহবুব হোসেন শক্তিশালী ফোর্সসহ অভিযান পরিচালনা করে। ১৬ এপিবিএন অধিনায়ক মোহাম্মদ হেমায়েতুল ইসলাম শুক্রবার (১৬ অক্টোবর) রাত সাড়ে ১০ টার দিকে এসব তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি জানান, বেশ কিছু দিন ধরে রোহিঙ্গা ক্যাম্পে আইন শৃঙ্খলা পরিপন্থি কর্মকাণ্ড চালিয়ে যাচ্ছে কিছু সন্ত্রাসী। সেখানে উগ্রপন্থী লোকজনও জড়িত বলে তারা বিভিন্ন সুত্রে জানতে পেরেছে। এরপর থেকে ক্যাম্পগুলোতে ব্যাপক নজরদারি বাড়ানো হয়। সম্ভাব্য স্থানে অভিযানও চালাচ্ছে প্রশাসন। ইতোমধ্যে অনেক রোহিঙ্গা সন্ত্রাসী অস্ত্রসহ প্রেপ্তার হয়েছে।

অধিনায়ক মোহাম্মদ হেমায়েতুল ইসলাম জানান, শুক্রবার প্রেপ্তার হওয়া সন্ত্রাসী নুরুন্নবী কিছু দিন পূর্বে উখিয়া থানায় অস্ত্রসহ প্রেপ্তার হয়েছিল। সে সালমানশাহ গ্রুপের সদস্য। তার বিরুদ্ধে একাধিক মামলা হয়েছে। অপরাধীদের প্রেপ্তারে অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে জানান ১৬ এপিবিএন অধিনায়ক।

সূত্র : বাংলাদেশ জার্নাল
এন এইচ, ১৭ অক্টোবর

Back to top button