জাতীয়

টিকা নিলেন ৫৪ লাখের বেশি মানুষ

ঢাকা, ০১ এপ্রিল – দেশে করোনা ভ্যাকসিন দেয়ার ৪৫তম দিনে ৪২ হাজার ৩৬০ জন ভ্যাকসিন নিয়েছেন। এরমধ্যে পুরুষ ২৪ হাজার ২৯৬ জন ও নারী ১৮ হাজার ৬৪ জন ভ্যাকসিন নেন।

এ নিয়ে আজ বৃহস্পতিবার পর্যন্ত সারা দেশে ৫৪ লাখ ১২ হাজার ৭৯১ জন ভ্যাকসিন নিয়েছেন। তাদের মধ্যে পুরুষ ৩৩ লাখ ৬৩ হাজার ৫৯৪ জন ও নারী ২০ লাখ ৪৯ হাজার ১৯৭ জন। পাশাপাশি এ পর্যন্ত করোনার ভ্যাকসিন নিতে অনলাইনে নিবন্ধন করেছেন ৬৮ লাখ ৩৮ হাজার ৮১৫ জন।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ্ ইমার্জেন্সী অপারেশন সেন্টার ও কন্ট্রোল রুমের (এমআইএস) পরিচালক অধ্যাপক ডা. মিজানুর রহমানের সই করা বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

এতে জানানো হয়, ঢাকা মহানগরীতে ভ্যাকসিন নিয়েছেন ছয় হাজার ৩৫৭ জন। এরমধ্যে পুরুষ তিন হাজার ৯৪৯ জন ও নারী দুই হাজার ৪০৮ জন ভ্যাকসিন নেন।

আরও পড়ুন : গণপরিবহনে অতিরিক্ত ভাড়া নিলে কঠোর ব্যবস্থা: ওবায়দুল কাদের

ঢাকা বিভাগে ভ্যাকসিন নিয়েছেন ১১ হাজার ১৯২ জন। এরমধ্যে পুরুষ ছয় হাজার ৯৫৮ জন ও নারী চার হাজার ২৩৪ জন ভ্যাকসিন নেন। এছাড়াও ময়মনসিংহ বিভাগে দুই হাজার ৯২৩ জন ভ্যাকসিন নেন; যার মধ্যে পুরুষ এক হাজার ৬৭৩ ও নারী এক হাজার ২৫০ জন।

চট্টগ্রাম বিভাগে আট হাজার ৫৮১ জন ভ্যাকসিন নেন; যার মধ্যে পুরষ চার হাজার ৮৩৬ জন ও নারী তিন হাজার ৭৪৫ জন ভ্যাকসিন নেন।

রাজশাহী বিভাগে ছয় হাজার ৩৩৩ জন ভ্যাকসিন নেন; যার মধ্যে পুরুষ তিন হাজার ৬১০ জন ও নারী দুই হাজার ৭২৩ জন।

রংপুর বিভাগে ছয় হাজার ৪৯৭ জন ভ্যাকসিন নেন; যার মধ্যে পুরুষ তিন হাজার ৩৯৫ জন ও নারী তিন হাজার ১০২ জন। খুলনা বিভাগে তিন হাজার ৪৯৭ জন ভ্যাকসিন নেন; যার মধ্যে পুরুষ এক হাজার ৯২৬ ও নারী এক হাজার ৫৭১ জন।

বরিশাল বিভাগে ৭৪৮ জন ভ্যাকসিন নেন; যার মধ্যে পুরুষ ৪৫২ জন ও নারী ২৯৬ জন এবং সিলেট বিভাগে দুই হাজার ৫৮৯ জন ভ্যাকসিন নেন; যার মধ্যে পুরুষ এক হাজার ৪৪৬ জন ও নারী এক হাজার ১৪৩ জন।

রাজধানীর বিভিন্ন হাসপাতালসহ সারা দেশের এক হাজার পাঁচটি হাসপাতালে কোভিড-১৯ টিকা দেয়া হচ্ছে। টিকাদানের প্রথম দিন মোট ৩১ হাজার ১৬০ জনকে টিকা দেয়া হয় বলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে জানানো হয়েছিল।

বর্তমানে বাংলাদেশে অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকার ৭০ লাখ ডোজ রয়েছে এবং করোনার টিকা নিতে চাইলে www.surokkha.gov.bd ওয়েবসাইটে গিয়ে নিবন্ধন করতে হবে।

গত ২৭ জানুয়ারি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঢাকার কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন। সেসময় দুই দিনে মোট ৫৬৭ জনকে ভ্যাকসিন দেওয়া হয়।

বাংলাদেশে এই ভ্যাকসিন পরীক্ষামূলক প্রয়োগ না হওয়ায় বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রটোকল অনুযায়ী তাদের এক সপ্তাহ পর্যবেক্ষণ করা হয়। কারও মধ্যে গুরুতর কোনো পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা না দেওয়ায় পরিকল্পনা মত ৭ ফেব্রুয়ারি থেকে গণ ভ্যাকসিন দেয়া শুরু হয়।

সূত্র : চ্যানেল আই
এন এইচ, ০১ এপ্রিল

Back to top button