বলিউড

সংগীতা-সালমানের প্রেম, খলনায়িকা সোমি আলী

মুম্বাই, ০১ এপ্রিল – বলিউড সুপারস্টার সালমান খান। তার বয়স এখন পঞ্চান্ন। এখনো ‘ব্যাচেলর’ তকমা নিয়ে দাপটের সঙ্গে অভিনয় করছেন। বিটাউনে প্রায়ই তার প্রেম-বিয়ের গুঞ্জন শোনা যায়। বলা যায়—কোটি টাকার প্রশ্ন, কবে বিয়ে করছেন সালমান?

বলিউডে পা রেখে ইন্ডাস্ট্রির অনেক নামি নায়িকার সঙ্গে প্রেমের সম্পর্কে জড়িয়েছেন সালমান খান। এ তালিকায় রয়েছেন—সোমি আলী, ঐশ্বরিয়া রাই বচ্চন, সংগীতা বিজলানি, ক্যাটরিনা কাইফ প্রমুখ। তবে সংগীতার সঙ্গে সালমানের প্রেমের সম্পর্কের ভাঙনের খলনায়িকা ছিলেন সোমি আলী। ভারতীয় একটি সংবাদমাধ্যমে দেওয়া সাক্ষাৎকারে এ তথ্য জানিয়েছেন পাকিস্তানি বংশোদ্ভূত বলিউড অভিনেত্রী সোমি আলী।

আরও পড়ুন : কন্যার ধমক খেয়েও সেই অভ্যাস ছাড়েননি শাহরুখ

সংবাদমাধ্যমটিকে সোমি আলী বলেন—‘আমি প্রায়ই দেখতাম সংগীতা সালমানের বাড়িতে আসছে। সংগীতাকে দেখলেই রেগে যেতাম। তখন আমি সালমানকে বিয়ে করার জন্য পাগল। প্রায় এক বছর পরে আমরা ডেট শুরু করি। সালমান আমার জন্যই সংগীতার সঙ্গে ব্রেক আপ করেছিল। এটা অন্যায় হয়েছিল। কিন্তু আমার বয়স তখন খুবই কম ছিল। যার কারণে এতকিছু ভেবে দেখিনি।’

বেশ কিছু সিনেমায় অভিনয় করেছেন সোমী আলী। কিন্তু নায়িকা হিসেবে ক্যারিয়ার গড়া নিয়ে তার বিশেষ মাথাব্যথা ছিল না। বরং সালমান খানের কাছাকাছি আসতেই বলিউডে পা রাখেন তিনি। বিষয়টি উল্লেখ করে এই অভিনেত্রী বলেন, ‘সালমানের কাছাকাছি আসার জন্যই বলিউডে পা রাখি।’

এবারই প্রথম নয়, এর আগেও ব্যক্তিগত জীবনের নানা বিষয় নিয়ে কথা বলেছেন সোমি। এর আগে সোমি আলী দাবি করেছিলেন—ঐশ্বরিয়ার কারণেই সালমানের সঙ্গে তার সম্পর্কের ভাঙন ধরে। বিষয়টি উল্লেখ করে এই অভিনেত্রী বলেন, ‘আমি আর সালমান একসঙ্গে সুন্দর সময় কাটাচ্ছিলাম। তখন ‘হাম দিল দে চুকে সনম’ সিনেমার শুটিং শুরু হয়। এই সিনেমার কারণে ঐশ্বরিয়ার সঙ্গে দেখা হয় সালমানের। এ সিনেমার কাজ শেষ না হতেই ডেট করতে শুরু করে সালমান-ঐশ্বরিয়া।’

এখন প্রাক্তন প্রেমিক সালমানের সঙ্গে যোগাযোগ রয়েছে কিনা? এমন প্রশ্নের উত্তরে সোমি আলী বলেন, ‘না। বহু বছর হয়ে গেল সালমানের সঙ্গে আমার কোনো কথা হয় না। আমি মনে করি, এটাই সঠিক। তবে সালমানের মায়ের সঙ্গে দেখা হয়েছিল। তাকে আমি খুব শ্রদ্ধা করি।’

‘আন্ত’ (১৯৯৪), ‘ইয়ার গাদ্দার’ (১৯৯৪), ‘আও পেয়ার কারে’ (১৯৯৪), ‘চুপ’ (১৯৯৭) সিনেমায় অভিনয় করেছেন সোমি। তবে অভিনয় জগতকে অনেক আগেই বিদায় জানিয়েছেন। বর্তমানে ‘নো মোর টেয়ার্স’ নামে অলাভজনক একটি দাতব্য সংস্থা পরিচালনা করেন তিনি। যৌন হেনস্তা ও ধর্ষণের শিকার হওয়া নারীদের সহযোগিতা করছেন এই অভিনেত্রী।

এন এইচ, ০১ এপ্রিল

Back to top button