জামালপুর

প্রেমিককে খুঁজতে ভারতে বাংলাদেশি কিশোরী!

জামালপুর, ১৯ মার্চ – ১৮ মার্চ প্রেমিককে খুঁজতে সীমান্ত পেরিয়ে ভারতের নন্দীরচর গ্রামে চলে যায় বাংলাদেশের মেরিনা আক্তার নামের এক কিশোরী। সন্দেহজনক আচরণে বিএসএফ মেরনিাকে আটক করে। পরে পুলিশ তাকে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করে।

বকশীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শফিকুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। এছাড়াও জামালপুর ৩৫ এর রাইফেলস ব্যাটালিয়নের কমান্ডিং অফিসার লে. কর্নেল মুনতাসির বলেন, ‘ওই কিশোরীর সঙ্গে ভারতীয় সীমান্তবর্তী গ্রামের আক্তার হোসেন নামে এক ছেলের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। বৃহস্পতিবার (১৮ মার্চ) বিকেলে মেয়েটি প্রেমের টানে বকশীগঞ্জ সীমান্ত দিয়ে ভারতে চলে যায়। পরে আক্তার হোসেনকে খুঁজতে থাকে। এ সময় সন্দেহজনক আচরণে বিএসএফ তাকে আটক করে।’

আরও পড়ুন : নারী পোশাক শ্রমিককে গাছে বেঁধে নির্যাতন

পরে বিএসএফ বিজিবির সঙ্গে যোগাযোগ করে। বকশীগঞ্জ- কামালপুর স্থলবন্দর সীমান্তে পতাকা বৈঠকের শেষে কিশোরীকে পুলিশের কাছে হস্তান্তর করেছে বিএসএফ। পতাকা বৈঠকে বিজিবি-৩৫ ব্যাটালিয়নের পক্ষে নেতৃত্বে দেন কোম্পানী কমান্ডার আজমল হোসেন এবং ভারতের বিএসএফের পক্ষে নেতৃত্ব দেন এসকে বিশাল।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, নবম শ্রেণি পড়ুয়া ওই কিশোরীর নাম মেরিনা আক্তার। সে জামালপুরের দেওয়ানগঞ্জ উপজেলার পাররামপুর ইউনিয়নের রহিমপুর গ্রামের বাসিন্ধা।

সূত্র: বাংলাদেশ প্রতিদিন
এন এ/ ১৯ মার্চ

Back to top button