যশোর

উপজেলা চেয়ারম্যান অতিষ্ঠ প্রতিমন্ত্রীর ভাগ্নের অত্যাচারে

যশোর, ১৪ অক্টোবর- প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্যের ভাগ্নে উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান উত্তম চক্রবর্তী বাচ্চুর ‘অত্যাচার, নিপীড়ন’ থেকে নিজের, এলাকাবাসীর ও আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের মুক্তি চাইলেন যশোরের মনিরামপুর উপজেলা চেয়ারম্যান নাজমা খানম।

বুধবার যশোর প্রেস ক্লাব মিলনায়তনে সংবাদ সম্মেলন করে তিনি বলেন, ‘আমি স্বাভাবিক মৃত্যুর নিশ্চয়তা চাই।’

নাজমা খানম বলেন, গত ১৩ অক্টোবর উপজেলার শাহপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কিছু গাছ বিক্রির জন্য উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা প্রকাশ্য নিলাম আহ্বান করেন। নিলামে অংশ নিতে আমার প্রতিবেশী হাবিবুর রহমান হাবিব এবং সবুজ কর ঘটনাস্থলে উপস্থিত হলে উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান উত্তম চক্রবর্তী বাচ্চু হুংকার দিয়ে বলেন, ‘এই নিলামে অন্য কেউ অংশগ্রহণ করতে পারবে না। করলে জানে মেরে ফেলব।’

এরপরই তার সন্ত্রাসী বাহিনী হাবিব ও সবুজের ওপর হামলা চালায়। নিলামে অংশগ্রহণের জন্য কাছে থাকা তিন লাখ টাকা ছিনিয়ে নেয় এবং দু’জনকে একটি ঘরে আটকে রাখে তারা। সংবাদ পেয়ে কয়েকজনকে নিয়ে আমি ঘটনাস্থলে ছুটে যাই। তখন তারা দেশি অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে আমাদের ওপর হামলা চালায়। তাদের হামলায় ছাত্রনেতা সন্দীপ ঘোষ ও আমার ব্যক্তিগত সহকারী মনিরুল ইসলাম গুরুতর জখম হয়। এ ঘটনায় আমি চিহ্নিত সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে থানায় এজাহার দাখিল করলেও অজ্ঞাত কারণে এজাহারটি মামলা হিসেবে নথিভুক্ত করা হয়নি।

আরও পড়ুন:  রেললাইনে গান শোনায় মগ্ন দুই যুবকের মৃত্যু

উপজেলা চেয়ারম্যান বলেন, উত্তম চক্রবর্তী বাচ্চু ৫৪৯ বস্তা সরকারি ত্রাণের চাল চুরি মামলার চার্জশিটভুক্ত আসামি হয়েও এখনও স্বপদে বহাল রয়েছেন। তাকে গ্রেপ্তারও করা হয়নি। তিনি বারবার আমাকে হত্যার হুমকি, শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত ও মানসিকভাবে আঘাত করে মৃত্যুর দিকে ঠেলে দিচ্ছেন।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান আওয়ামা লীগ নেতা মিকাইল হোসেন, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি সন্দীপ ঘোষ, সাবেক সাধারণ সম্পাদক কাজী টিটো প্রমুখ।

সূত্র: সমকাল

আর/০৮:১৪/১৪ অক্টোবর

Back to top button