জাতীয়

ডিভি ভিসা আবেদন শুরু হলেও সুযোগ নেই বাংলাদেশিদের

ঢাকা, ১৪ অক্টোবর- লটারির মাধ্যমে অভিবাসন প্রত্যাশীদের ভিসা দিতে আবেদন গ্রহণ করা শুরু করেছে যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দফতর। ডাইভারসিটি ইমিগ্রান্ট ভিসা প্রোগ্রাম বা ডিভি ভিসার জন্য আবেদনকারীদের মধ্য থেকে লটারির মাধ্যমে নির্বাচিত ৫৫ হাজার জন যুক্তরাষ্ট্রে বসবাসের সুযোগ পাবেন। ২০২২ সালের জন্য লটারির আবেদন জমা নেওয়া শুরু হয়েছে গত ৭ অক্টোবর। আগামী ১০ নভেম্বর পর্যন্ত এই আবেদন করা যাবে। তবে এবারে বাংলাদেশ, ভারতসহ প্রায় ২০টি দেশের নাগরিকেরা এই আবেদনের সুযোগ পাবেন না।

২০১২ সাল পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রের গ্রিন কার্ড তথা বৈধভাবে থাকার জন্য বৈচিত্র্যময় অভিবাসী লটারি ভিসা তথা ডিভি লটারির আওতায় ছিল বাংলাদেশ। কিন্তু বাংলাদেশ থেকে যুক্তরাষ্ট্রগামী অভিবাসীর সংখ্যা দিন দিন বেড়ে যাওয়ায় ২০১৩ সালে এ ভিসা কর্মসূচি থেকে বাংলাদেশের নাম বাদ দেওয়া হয় এবং তখন থেকে তা এখনও বহাল আছে।

মার্কিন পররাষ্ট্র দফতর জানিয়েছে, বিগত পাঁচ বছরে ৫০ হাজারের বেশি নাগরিক যুক্তরাষ্ট্রে বসবাসের সুযোগ পাওয়ায় বেশ কয়েকটি দেশের নাগরিকেরা এবারে ডিভি আবেদন করতে পারবে না। দেশগুলো হলো, বাংলাদেশ, ব্রাজিল, কানাডা, চীন, কলোম্বিয়া, ডোমিনিকান রিপাবলিক, এল সালভাদর, গুয়েতেমালা, হাইতি, হন্ডুরাস, ভারত, জামাইকা, মেক্সিকো, নাইজেরিয়া, পাকিস্তান, ফিলিপাইন, দক্ষিণ কোরিয়া, যুক্তরাজ্য এবং ভিয়েতনাম।

আরও পড়ুন:  কলেজ ছাত্রীকে অপহরণের এক মাস পর উদ্ধার

ডিভি ভিসা আবেদনকারীদের মধ্য থেকে লটারির মাধ্যমে নির্বাচিতদের কিছু সহজ শর্ত কঠোরভাবে পূরণ করতে হবে বলে জানিয়েছে মার্কিন পররাষ্ট্র দফতর। এর মধ্যে শিক্ষাগত বা কর্ম অভিজ্ঞতা সংক্রান্ত যোগ্যতা রয়েছে। বলা হয়েছে, আবেদনকারীদের অন্তত ১২ বছরের প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষা সফলভাবে সম্পন্ন করা থাকতে হবে কিংবা গত পাঁচ বছরের মধ্যে অন্তত দুই বছরের প্রশিক্ষণ বা কাজে নিয়োজিত থাকার অভিজ্ঞতা থাকতে হবে।

একাধিকবার আবেদনের বিষয়ে কঠোরভাবে সতর্ক করেছে মার্কিন পররাষ্ট্র দফতর। স্পর্শকাতর প্রযুক্তির মাধ্যমে এ ধরণের আবেদন শনাক্ত করা হবে জানিয়ে তা বাতিলের কথা বলা হয়েছে।

সূত্র: বাংলা ট্রিবিউন

আর/০৮:১৪/১৪ অক্টোবর

Back to top button