জাতীয়

ফাঁসি নয়, ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠা করেন: ডা. জাফরুল্লাহ

ঢাকা, ১৩ অক্টোবর- সরকারের উদ্দেশ্যে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেছেন, ধর্ষণের সর্বোচ্চ শাস্তি ফাঁসি নয়, ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠা করেন। তাহলে দেশে শান্তি প্রতিষ্ঠিত হবে।

মঙ্গলবার জাতীয় প্রেসক্লাবের জহুর হোসেন চৌধুরী হলে জাতীয় স্মরণ মঞ্চের উদ্যোগে বীর মুক্তিযোদ্ধা ইসমাইল হোসেন বেঙ্গল স্মরণে নাগরিক শোক সভায় তি‌নি এসব কথা বলেন।

সংগঠনের সহ সভাপতি লায়ন আলামীনের সভাপতিত্বে ও সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসেনের সঞ্চালনায় সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না, বিএনপি চেয়ারপারসন উপদেষ্টা কবি আবদুল হাই শিকদার, মুক্তিযোদ্ধা দলের সভাপতি উলফাত আজিজ, সাধারণ সম্পাদক সাদেক খান, গণস্বাস্থ্যের প্রেস উপদেষ্টা জাহাঙ্গীর আলম মিন্টু ও ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সাংগঠনিক সম্পাদক দিদারুল ইসলাম প্রমুখ।

জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, কয়েক দিন যাবৎ আমরা যা দেখছি এই ধর্ষণ, নারী নির্যাতন হঠাৎ করে মানুষ খারাপ হয়ে গেল? না। দেশে অনাচার থাকলে, দুর্নীতি থাকলে, সুশাসনের অভাব থাকলে এটা ঘটানো হয়। এই সব জিনিস নিজে থেকে ঘটছে তা না।

আরও পড়ুন: নিক্সনের বিরুদ্ধে অভিযোগ জেনেছি, আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে : সিইসি

তিনি বলেন, দেখেন কত দ্রুত একটা আইন করে ফেলল। ধর্ষণের সর্বোচ্চ শাস্তি ফাঁসি। এটা কোন উত্তর হতে পারে না। আসলে এর প্রতিকার কি? এর প্রতিকার হলো ন্যায়বিচার। আর এই ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠা করতে হলে দেশে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করতে হবে।

তিনি বলেন, সরকার প্রতিটি ক্ষেত্রেই ভুল কাজ করছেন। ফাঁসি অত্যন্ত একটি ভুল কাজ। এর চেয়ে ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠা করেন। ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠা করলে ১৫ দিন বা ৭ দিনের মধ্যেই যারা ধর্ষক তাদের ৮০ পার্সেন্ট ধরা পড়ে যাবে। তাদের বিরুদ্ধে চার্জশিট গঠন করে বিচার করেন। আর যারা ধরা পরবে না তাদের জন্য আলাদা মামলা করেন। তাহলে দেখবেন দেশে শান্তি প্রতিষ্ঠিত হবে।

সূত্র : দেশ রূপান্তর
এম এন / ১৩ অক্টোবর

Back to top button