কুমিল্লা

নির্বাচনী উঠান বৈঠকে গুলি, আহত ৫

কুমিল্লা, ০৭ ফেব্রুয়ারি – কুমিল্লার বরুড়ায় ইউপি নির্বাচন উপলক্ষে সাবেক চেয়ারম্যানের নির্বাচনী উঠান বৈঠকে গুলি ছোঁড়ার ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় পাঁচজন আহত হয়েছেন।

শনিবার (৬ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে উপজেলার আগাননগর ইউনিয়নের শরাফতি মধ্যমপাড়ায় এ ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এ ঘটনায় এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে।

আহতরা হলেন- শরাফতি গ্রামের আবদুর রাজ্জাকের ছেলে রবিউল (৩০), আবদুল জলিলের ছেলে রাব্বি (৩১), দেলোয়ার হোসেনের ছেলে আলী হোসেন (২০), আক্কাস আলীর ছেলে অলিউল্লাহ (৪০) ও জয়নাল আবদীনের ছেলে ওমর ফারুক (৪০)। তাদেরকে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আরও পড়ুন : এক মাসুদের হাতে জিম্মি ১৭ পরিবার

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, বরুড়া উপজেলার আগানগর ইউনিয়নের শরাফতি গ্রামে স্থানীয় আওয়ামী লীগের উদ্যোগে উঠান বৈঠকের আয়োজন করা হয়। বৈঠকে প্রধান অতিথি ছিলেন সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান মাজহারুল ইসলাম মিঠু। তিনি আসন্ন ইউপি নির্বাচনে সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থী। উঠান বৈঠক চলাকালে দূর থেকে কয়েক রাউন্ড গুলি ও ককটেল ছোঁড়ে দুর্বৃত্তরা। এতে পাঁচজন আহত হন।

এদিকে এ ঘটনায় সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান মাজহারুল ইসলাম মিঠু আরেক সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থী ওমর ফারুক ভূঁইয়াকে দায়ী করেছেন। তিনি বলেন, ‘আমার সর্মথকরা উঠান বৈঠকের আয়োজন করে। সেখানে ওমর ফারুকের লোকজন গুলি চালিয়েছে, ককটেল ছুঁড়েছে। এতে আমার পাঁচজন কর্মী গুরুতর আহত হয়েছেন। তাদের হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়েছে।’

তবে এ বিষয়ে জানতে চেয়ারম্যান প্রার্থী ওমর ফারুক ভূঁইয়ার সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি।

বরুড়া থানার অফিসার ইনর্চাজ (ওসি) ইকবাল বাহার মজুমদার বলেন, ‘খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য দুইজনকে থানায় আনা হয়েছে। পরিস্থিতি এখন স্বাভাবিক রয়েছে। এ ঘটনায় এখনও কেউ থানায় অভিযোগ করেনি।’

সূত্র : জাগো নিউজ
এন এইচ, ০৭ ফেব্রুয়ারি

Back to top button