ব্রাহ্মণবাড়িয়া

মামুনুল হককে মাহফিলে আসতে বাধা দেওয়ার অভিযোগ, মাদ্রাসা ছাত্রদের বিক্ষোভ

ব্রাহ্মণবাড়িয়া, ০৩ ফেব্রুয়ারি – ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ‘আল্লামা’ মামুনুল হককে আসতে বাধা দেয়ার অভিযোগে মাদরাসা ছাত্ররা বিক্ষোভ করেছে। মঙ্গলবার রাত ১১টার দিকে কুমিল্লা-সিলেট মহাসড়কের কাউতুলী মোড়ে আগুন জ্বালিয়ে অবরোধ করে তারা।

এ সময় ঘণ্টাব্যাপী মহাসড়ক অবরোধ করে রাখায় যান চলাচলে বিঘ্ন হয়। পরে সদর মডেল থানার পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, মঙ্গলবার ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌর এলাকার ভাদুঘরে জামিয়া সিরাজিয়া দারুল উলুম মাদরাসায় বার্ষিক ওয়াজ মাহফিল ছিল।

আরও পড়ুন : চিকিৎসকের অবহেলায় নার্সের বাবার মৃত্যু

এতে হেফাজতে ইসলামের আমির ‘আল্লামা’ জুনায়েদ বাবু নগরীসহ বিভিন্ন উলামায়ে কেরাম বক্তব্য দেয়ার কথা ছিল। হেফাজত ইসলামের যুগ্ম-মহাসচিব ও খেলাফত মজলিসের ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মামুনুল হক ভৈরবে একটি ওয়াজ মাহফিল শেষে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার ভাদুঘরের সেই মাহফিলে উপস্থিত হতে রওয়ানা দেয়।

রাত ১১টার দিকে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার মাদরাসার ছাত্রদের কাছে তথ্য আসে, ‘আল্লামা’ মামুনুল হককে আসতে সড়কে বাঁধা দেয়া হচ্ছে। এই খবরে তারা বিক্ষুব্ধ হয়ে পড়ে। ভাদুঘর থেকে মাদরাসার ছাত্ররা মিছিল করে এসে কাউতুলী মোড়ে মহাসড়কে বিক্ষোভ করে। এ সময় সড়কে আগুন জ্বালিয়ে বিভিন্ন স্লোগান দেয় তারা। খবর পেয়ে সদর মডেল থানার পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

হেফাজত ইসলামের নায়েবে আমির মাওলানা সাজিদুর রহমান বলেন, ‘আল্লামা’ মামুনুল হককে আসতে বাধা দেয়া হয়েছে, এমন খবর পেয়ে ছাত্ররা বিক্ষোভ করেছে। এখন পরিস্থিতি স্বাভাবিক আছে। মামুনুল হক ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় আসছেন বলে খবর পেয়েছি।’

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মোহাম্মদ শাহজাহান জানান, মামুনুল হককে আসতে বাধা দেয়া হয়েছে, এমন গুজব ছড়ানো হয়েছিল। এতে মাদরাসার ছাত্ররা বিক্ষোভ করে। মামুনুল হককে কোনো প্রকার বাধা প্রদান দেয়া হয়নি। তিনি ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় আসতে রওয়ানা দিয়েছেন।’

সূত্র : জাগো নিউজ
এন এইচ, ০৩ ফেব্রুয়ারি

Back to top button