জাতীয়

৩৪ জেলায় পাঠানো শুরু হয়েছে ভারত থেকে আসা করোনাভাইরাসের টিকা

গাজীপুর, ২৯ জানুয়ারি – গাজীপুরের টঙ্গীতে বেক্সিমকোর ওষুধ কারখানায় রাখা ভারত থেকে আসা করোনাভাইরাসের টিকা ৩৪ জেলায় পাঠানো শুরু হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২৮ জানুয়ারি) সন্ধ্যা থেকে কড়া নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে টিকা পাঠানো শুরু করেছে বেক্সিমকো ওষুধ কারখানা কর্তৃপক্ষ ও স্থানীয় প্রশাসন। গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ (জিএমপি) টঙ্গী পশ্চিম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহ্ আলম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

ওসি জানান, ভারত থেকে আসা ৫০ লাখ টিকা ওই কারখানায় রক্ষিত ছিল। বৃহস্পতিবার প্রথম পর্যায়ে দেশের ৩৪ জেলায় ২৬ লাখ ৪ হাজার ডোজ টিকা পাঠানো শুরু হয়েছে। টঙ্গীর বেক্সিমকো কারখানা থেকে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা রাত থেকে শুক্রবার ভোর রাত পর্যন্ত ফ্রিজার গাড়িতে করে টিকাগুলো পাঠানো হচ্ছে।

আরও পড়ুন : দেশে আসার জন্য ছাড়পত্র পেয়েছে রাশিয়ার করোনা ভ্যাকসিন

তিনি আরও জানান, গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের পক্ষ থেকে ৩৪ জেলা প্রশাসনের কাছে টিকার ডোজ পৌঁছানোর খবর আগেই অবহিত করা হয়েছে। করোনার টিকা পাঠানো জেলাগুলো হচ্ছে– ময়মনসিংহ, জামালপুর, শেরপুর, নেত্রকোনা, ব্রাহ্মণবাড়িয়া, হবিগঞ্জ, মৌলভীবাজার, সিলেট, সুনামগঞ্জ, নরসিংদী, ভোলা, বরিশাল, ঝালকাঠি, পটুয়াখালী, বরগুনা, রাজবাড়ী, ফরিদপুর, গোপালগঞ্জ, মাদারীপুর, শরীয়তপুর, কুষ্টিয়া, মেহেরপুর, চুয়াডাঙ্গা, ঝিনাইদহ, মাগুরা, নড়াইল, পাবনা, নাটোর, রাজশাহী, চাঁপাইনবাবগঞ্জ, সিরাজগঞ্জ, বগুড়া, নওগাঁ ও জয়পুরহাট। শুক্রবার উল্লিখিত জেলাগুলোর সিভিল সার্জনরা টিকাগুলো নিজ দায়িত্বে প্রশাসনের সহায়তায় গ্রহণ করবেন।

টঙ্গীর চেরাগ আলীর বেক্সিমকো ওষুধ কারখানা থেকে করোনার ভ্যাকসিনের প্রথম চালান পাঠানোর সময় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- আহমেদ ইমরানুল হক, মাহবুব আলম, কাজী নাদিম আহমেদ, গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের টঙ্গী জোনের উপ-কমিশনার ইলতুৎমিশ প্রমুখ।

সূত্র : বাংলা ট্রিবিউন
এন এইচ, ২৯ জানুয়ারি

Back to top button