জাতীয়

নির্বাচনের প্রতি মানুষের অনীহা সৃষ্টি হয়েছে: জি এম কাদের

ঢাকা, ২৮ জানুয়ারি – দেশের মানুষ নির্বাচনের প্রতি অনীহা প্রকাশ করেছে বলে মন্তব্য করেছেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ও বিরোধী দলীয় উপনেতা গোলাম মোহাম্মদ (জিএম) কাদের।

তিনি বলেছেন, দেশের মানুষ এখন আর নির্বাচনে ভোট দিতে যায় না। শুধু একটি দলই নির্বাচনে জয়লাভ করছে। তাই অন্যান্য দলগুলোর রাজনীতিতে টিকে থাকাই দুরূহ হয়ে পড়ছে।

বৃহস্পতিবার (২৮ জানুয়ারি) দুপুরে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যানের বনানী কার্যালয় মিলনায়তনে গাজীপুর জেলা জাতীয় পার্টি, অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

জিএম কাদের বলেন, ফলাফল যাই হোক জাতীয় পার্টি প্রতিটি নির্বাচনে অংশ নেবে। নির্বাচনে চ্যালেঞ্জ ছাড়া কাউকে ছেড়ে দেয়া হবে না। শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত নির্বাচনের মাঠে থাকবে জাতীয় পার্টি। যারা নির্বাচনে দলীয় প্রার্থীর বিপক্ষে কাজ করবে তাদের দল থেকে বহিষ্কার করা হবে।

আরও পড়ুন: সচিবদের মধ্যে প্রথম সস্ত্রীক টিকা নিলেন খাজা মিয়া

দেশের প্রতিটি নাগরিককে বিনামূল্যে করোনা ভ্যাকসিন সরবরাহের দাবি জানিয়ে তিনি বলেন, শুরু থেকেই জাতীয় পার্টি করোনা ভ্যাকসিন পরিবহন, সরবরাহ এবং টিকা দিতে দক্ষ কর্মী বাহিনী তৈরিতে সরকারকে পরামর্শ দিয়েছে। কিন্তু এখনো পর্যন্ত ভ্যাকসিন নিয়ে সরকারের নীতিমালা সাধারণ মানুষের কাছে পরিষ্কার নয়।

এ সময় জাতীয় পার্টি মহাসচিব জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু বলেন, দেশের নির্বাচনী ব্যবস্থা ভেঙে চুরমার হয়ে গেছে। প্রতিকূল অবস্থার মধ্যেও জাতীয় পার্টি প্রতিটি নির্বাচনে অংশ নিয়ে ভোটারদের সামনে পল্লীবন্ধু হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের উন্নয়ন এবং সুশাসনের চিত্র তুলে ধরা হবে। বাজারে নতুন পণ্যে সয়লাব তারপরও দ্রব্যমূল্য বেড়ে গেছে। সরকার বাজার নিয়ন্ত্রণে সম্পূর্ণ ব্যর্থ হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, দেশে জবাবদিহিতা নেই। তাই সরকার দেশের মানুষের ভাগ্য নিয়ে চিন্তিত নয়।

সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন- জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য সদস্য সুনীল শুভরায়, মীর আব্দুস সবুর আসুদ, আজম খান, অ্যাডভোকেট রেজাউল ইসলাম ভূঁইয়া, মা চেয়ারম্যানের উপদেষ্টা প্রফেসর ড. গোলাম মোস্তফা, ভাইস চেয়ারম্যান মোস্তাকুর রহমান মোস্তাক প্রমুখ।

সূত্র : জাগো নিউজ
এন এইচ, ২৮ জানুয়ারি

Back to top button