বগুড়া

এসিল্যান্ড পরিচয়ে ব্যবসায়ীদের কাছে চাঁদা দাবি

বগুড়া, ২৭ জানুয়ারি – বগুড়ার নন্দীগ্রাম উপজেলার এসিল্যান্ড অর্থাৎ সহকারী কমিশনার (ভূমি) নুরুল ইসলামের পরিচয়ে (০১৬১০-৯০১৯২২) নম্বর থেকে ফোন করে তিন ব্যবসায়ীর কাছে চাঁদা দাবি করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠছে। এ প্রতারণার ফাঁদে পা না দেওয়ার জন্য উপজেলাবাসীকে অনুরোধ করে আজ বুধবার এসিল্যান্ড ফেসবুক অ্যাকাউন্টে একটি স্ট্যাটাসও দিয়েছেন। এ ঘটনায় এলাকায় তোলপাড় শুরু হয়েছে।

জানা গেছে, গতকাল মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে উপজেলার নন্দীগ্রাম সদর ইউনিয়নের সিমলা বাজারে তিন মিষ্টি ব্যবসায়ীর কাছে এই ফোন করা হয়। বাজারটির মিষ্টি ব্যবসায়ী আলী, সৈকত হোসেন, শাহানুর রহমানের কাছে একই নম্বর থেকে ফোন আসে। এ সময় অপর প্রান্ত থেকে এসিল্যান্ড পরিচয় দিয়ে ফোনকারী ব্যক্তি বলেন, ‘বুধবার সকালে তোমাদের দোকানে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হবে। তোমাদের জেল ও দোকান সিলগালা করব। আর যদি তোমরা ৩০ হাজার টাকা করে দাও, তাহলে কিছুই করা হবে না। তোমরা ভালোভাবে ব্যবসা করবে।’

আরও পড়ুন : আমার মতো বয়স্করা টিকা নিলে অন্যরাও সাহস পাবে : সিলেটের এমপি

ওই ব্যক্তির কণ্ঠস্বর শুনে একপর্যায়ে তাদের সন্দেহ হয়। পরে এসিল্যান্ডের অফিসে যোগাযোগ করে বিষয়টি ভুয়া বলে তারা নিশ্চিত হন। পরে নিজের ফেসবুক আইডিতে একটি স্ট্যাটাস দেন এসিল্যান্ড। ওই স্ট্যাটাসে তিনি লেখেন, ‘কিছু অসাধু চক্র এসিল্যান্ডের নাম ব্যবহার করে বিভিন্ন ব্যক্তি ও ব্যবসায়ীদের কাছে চাঁদা দাবি করছে বলে জানা যাচ্ছে। কেউ এই প্রতারণার ফাঁদে পা দেবেন না। এ ব্যাপারে সবাইকে সতর্ক থাকার আহ্বান জানান।’

নন্দীগ্রাম উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) নুরুল ইসলাম বলেন, ‘ঘটনাটি শুনেছি। আর ওই নম্বর থানায় দেওয়া হয়েছে। তাকে শনাক্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’ এ বিষয়ে সবাইকে সতর্ক থাকার আহ্বান জানান তিনি।

সূত্র: আমাদের সময়
এন এ/ ২৭ জানুয়ারি

Back to top button