চট্টগ্রাম

‘পর্দাঘেরা বুথে গিয়ে দেখি অন্যজন ভোটটি দিয়ে দিয়েছেন’

চট্টগ্রাম, ২৭ জানুয়ারি – সহিংসতা ও অনিয়মের অভিযোগের মধ্য দিয়ে চলছে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন (চসিক) নির্বাচনের ভোটগ্রহণ। নিজের ভোট দিতে না পারার অভিযোগও করেছেন অনেকে।

এমনই একটি ঘটনা ঘটেছে শহীদ সাইফুদ্দিন খালেদ রোডস্থ লোক প্রশাসন প্রশিক্ষণ কেন্দ্র ভোটকেন্দ্রে।

কেন্দ্র থেকে বেরিয়ে আসা ভোটার আবদুল হাকিম অভিযোগ করে বলেন, ‘ভোট দেওয়ার জন্য সব প্রক্রিয়া শেষ করে পর্দাঘেরা বুথে ঢোকার পর দেখেন সেখানে অন্যজন (ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন-ইভিএমে) বাটন চেপে তার ভোটটি দিয়ে দিয়েছেন।’

কেন্দ্রের প্রিসাইডিং অফিসার আ হ ম মেজবাহ উদ্দিন জানান, ধানের শীষের দুজন এজেন্ট এসে আবার চলে গেছেন। তাদের আর কোনো এজেন্ট আসেননি। ওই কেন্দ্রে সকাল ১০টা পর্যন্ত ১৮০ জন ভোট দিয়েছেন।

ভোট কক্ষে একজনের ভোট অন্যজন দিয়ে দেওয়ার অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে প্রিসাইডিং অফিসার কোনো মন্তব্য করেননি।

আরও পড়ুন : ২ কাউন্সিলর প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষে যুবক নিহত

বুধবার সকাল ৮টা থেকে শুরু হওয়া এ নির্বাচনে বিভিন্ন কেন্দ্রে ভোটার উপস্থিতি দেখা গেছে তুলনামূলক কম।

সকাল থেকে বেশ কয়েকটি কেন্দ্র ঘুরে কোথাও ধানের শীষের মেয়র প্রার্থী ডা. শাহাদাত হোসেনের এজেন্ট দেখা যায়নি।

এসব কেন্দ্রের প্রিসাইডিং অফিসাররা বলেছেন, ধানের শীষের এজেন্ট কেন্দ্রে আসেননি।

অন্যদিকে শাহাদাত অভিযোগ করেছেন, সব কেন্দ্র থেকে তার এজেন্টদের বের করে দেওয়া হয়েছে।

আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী এম রেজাউল করিম চৌধুরী বলেন, বিএনপি প্রার্থীর অভিযোগ ভিত্তিহীন। তাদের এজেন্ট আসেনি কেন্দ্রে।

সূত্র: দেশ রূপান্তর
এন এ/ ২৭ জানুয়ারি

Back to top button