পশ্চিমবঙ্গ

হরে কৃষ্ণ হরে রাম, বিদায় যাও বিজেপি–বাম:‌ শুভেন্দুর পাল্টা এবার মমতার স্লোগান

কলকাতা, ২৫ জানুয়ারি – ভোটের বাংলায় চরমে স্লোগানে–স্লোগানে টক্কর। ‘‌হরে কৃষ্ণ হরে হরে, বিজেপি ঘরে ঘরে’‌— তৃণমূল থেকে বিজেপি–তে যোগ দেওয়ার পরপরই এই স্লোগান সামনে আনেন শুভেন্দু অধিকারী। যা এখন অন্যতম জনপ্রিয় স্লোগান গেরুয়া শিবিরের। কৃষ্ণ নামেই এবার এর পাল্টা স্লোগান দিলেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আর তাতে শুধু বিজেপি নয়, রাজ্যের বাম শিবিরকেও পশ্চিমবঙ্গে থেকে বিদায় জানানোর ডাক দিলেন তিনি।

সোমবার হুগলির পুরশুড়ার সভায় বিজেপি তথা বিরোধীদের আক্রমণ করে নতুন স্লোগানের কথা ও সুর বেঁধে দেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। গেরুয়া শিবিরের তুলোধনা করে এদিন তিনি বলেন, ‘‌অনেক সময় মা–বোনেরা গান করেন, হরে কৃষ্ণ হরে রাম। আমি বলি, হরে কৃষ্ণ হরে রাম, বিদায় যাও বিজেপি–বাম।’‌ আর শুভেন্দুর বর্তমান স্লোগানেই নিজের দলের নাম বসিয়ে মমতা এর পরই বলেন, ‘‌হরে কৃষ্ণ হরে হরে, তৃণমূল ঘরে ঘরে।’‌

আরও পড়ুন : স্বাস্থ্যসাথী কার্ড পাননি? ভোটের মুখে সহজে পরিষেবা প্রাপ্তির দিশা দেখালেন মুখ্যমন্ত্রী

এদিনের সভা বুথকর্মীদের উৎসর্গ করেন মুখ্যমন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘‌বুথকর্মীরাই দলের সম্পদ। তাঁরাই ইলেকশনটা করে। তাঁরাই প্রতিদিন তর্ক করে। ঝড়ে–জলে বক্তৃতা দেয়, ঘুরে বেড়ায়। ভোটার তালিকার কাজ করে। সারা বছর দলের জন্য কাজ করে। তাই আজ এই জনসভা আমি বুথকর্মীদের উৎসর্গ করলাম। তাঁরা ভাল থাকলে আমরা ভাল থাকব। তাঁরা ভাল না থাকলে আমরা কেউ ভাল থাকব না।

পাশাপাশি এদিন তৃণমূল নেতাকর্মীদেরও কড়া বার্তা দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘মনে রাখবেন, নেতা ‌তৈরি হয় তাঁর কাজের মাধ্যমে। গাছ থেকে পড়ে কখনও নেতা তৈরি হয় না। এ কথা স্বামী বিবেকানন্দ, নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসু বলেছেন। তৃণমূল ঘরে ঘরে মানুষের কাজ করবে। যদি কেউ কোনও ভুলভ্রান্তি করে দল তাঁকে শাসন করবে। এই দল শৃঙ্খলাবদ্ধ দল। এই দল কাউকে রেয়াত করে না।’‌

সূত্র : হিন্দুস্থান টাইমস
এন এ/ ২৫ জানুয়ারি

Back to top button