পশ্চিমবঙ্গ

পশ্চিমবঙ্গে আরও সাড়ে ৩ হাজার করোনা আক্রান্ত

কলকাতা, ১২ অক্টোবর- উৎসবের মরশুম শুরুর মুখেই রাজ্যের করোনা পরিস্থিতি বিপজ্জনক আকার নিয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ফের সাড়ে ৩ হাজারেরও বেশি মানুষ নোভেল করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। একদিনে রাজ্যে করোনার বলি আরও ৬০। সব মিলিয়ে রাজ্যে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ৩ লক্ষের দোরগোড়ায় পৌঁছেছে।

সোমবারের রাজ্য স্বাস্থ্য ভবনের বুলেটিন অনুযায়ী, একদিনে করোনায় ৬০ জনের মৃত্যু হয়েছে৷ রবিবার মৃতের সংখ্যাটা ছিল ৫৯৷ তুলনামূলকভাবে গতকালের চেয়ে ফের বাড়ল দৈনিক মৃত্যু৷ তবে এই পর্যন্ত বাংলায় করোনায় মোট মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৫ হাজার ৬৮২ জন৷

গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে রাজ্যে করোনা আক্রান্ত ৩,৫৮৩ জন৷ রবিবার সংখ্যাটা ছিল ৩,৬১২ জন৷ সব মিলিয়ে রাজ্যে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ৩ লক্ষের দোরগোড়ায় পৌঁছেছে।তথ্য অনুযায়ী ২ লক্ষ ৯৪ হাজার ৯৪৮ জন৷

প্রতিদিনই বাড়ছে অ্যাক্টিভ আক্রান্তের সংখ্যাটা৷ এদিনের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, ৩০ হাজার ৬০৪ জন৷ রবিবারের তুলনায় ৩৬৮ জন বেশি৷ এক সময় অ্যাক্টিভ আক্রান্তের সংখ্যাটা কমতে কমতে ২৩ হাজারে নেমে এসেছিল৷ সেটা ফের বাড়তে শুরু করায় চিন্তা বাড়ছে স্বাস্থ্য দফতরের৷

আরও পড়ুন: মণীশ খুনের তদন্তে সিবিআই চেয়ে রাজ্যপালের দ্বারস্থ মুকুল

এদিনও নতুন আক্রান্তের তুলনায় সুস্থ হয়ে উঠার সংখ্যাটা কম৷ একদিনে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৩,১৫৫ জন৷ রবিবার ছিল ৩,১১০ জন৷ এই পর্যন্ত সুস্থ হয়ে উঠার সংখ্যাটা ২ লক্ষ ৬২ হাজার ১০৩ জন৷ তবে রাজ্যে সুস্থতার হার ৮৭.৮৪ শতাংশ৷ রবিবারও সুস্থতার হার একই ছিল৷

একদিনে যে ৬০ জনের মৃত্যু হয়েছে তাদের মধ্যে কলকাতার ১৯ জন৷ উত্তর ২৪ পরগনার ১৬ জন৷ দক্ষিণ ২৪ পরগনার ৮ জন৷ হাওড়ার ২ জন৷ হুগলি ১ জন৷ পশ্চিম বর্ধমান ১ জন৷ পূর্ব মেদিনীপুর ১ জন৷ পশ্চিম মেদিনীপুর ৩ জন৷ নদিয়া ২ জন৷ মালদা ৪ জন৷ জলপাইগুড়ি ১ জন৷ দার্জিলিং ১ জন৷ কোচবিহার ১ জন৷

যদিও বাংলায় একদিনে ৪০ হাজার ০৫৬ টি নমুনা টেস্ট হয়েছে৷ রবিবার ছিল ৪২ হাজার ৬১১ টি৷ তুলনামূলক এদিন কম টেস্ট হয়েছে৷ এই মূহুর্তে মোট টেস্টের সংখ্যা ৩৭ লক্ষ ৩৩ হাজার ৬৫৬ টি৷ প্রতি ১০ লক্ষ জনসংখ্যায় টেস্টের সংখ্যা বেড়ে হল ৪১,৪৮৫ জন৷

এই মুহূর্তে সরকারি এবং বেসরকারি মিলিয়ে রাজ্যে ৯১ টি ল্যাবরেটরিতে করোনা টেস্ট হচ্ছে৷ আরও ৫ টি ল্যাবরেটরি অপেক্ষায় রয়েছে৷

বাংলায় ৯২ টি সরকারি এবং বেসরকারি হাসপাতালে আইসোলেশন শয্যা তৈরি করা হয়েছে৷ এর মধ্যে সরকারি ৩৭ টি হাসপাতাল ও ৫৫ টি বেসরকারি হাসপাতাল রয়েছে৷ হাসপাতালগুলিতে মোট কোভিড বেড রয়েছে ১২,৭১৫ টি৷ আইসিইউ শয্যা রয়েছে ১,২৪৩টি, ভেন্টিলেশন সুবিধা রয়েছে ৭৯০টি৷ কিন্তু সরকারি কোয়ারেন্টাইন সেন্টার রয়েছে ৫৮২টি৷

সূত্র : কলকাতা২৪
এন এইচ, ১২ অক্টোবর

Back to top button