ঢালিউড

৩ মি. ৪৯ সে. ভিডিও’র জন্য আমাকে এপ্রেশিয়েট করতে পারতেন

ঢাকা, ১২ অক্টোবর- ধর্ষণের প্রতিকারে নারীদের শালীন পোশাকে বাইরে বের হওয়ার পরামর্শ দিয়ে সমালোচনার মুখে পড়া অভিনেতা ও প্রযোজক অনন্ত জলিল নতুন আরও একটি ভিডিও প্রকাশ করেছেন। সেই ভিডিওর পর সোমবার সকালে আবার ভিডিও প্রকাশ করেছেন, যেখানে ধর্ষকদের বিরুদ্ধে তার বলা কথাকে অন্তত এপ্রেশিয়েট করা উচিৎ বলে জানান খোঁজ দ্য সার্চের এই অভিনেতা।

জলিল বলেন, আমি মেয়েদেরকে সম্মান করি। শুধু মেয়েদেরকে নয়, সারাদেশের মানুষকেই সনমান (সম্মান) করি। এটা মুখে বলার কথা নয়, আমি ২০০৮ থেকে মিডিয়াতে। আমি খোঁজ দ্য সার্চের শুটিং শুরু করি ২০১০৮ সাল থেকে। অনন্ত জলিলের ক্যারেক্টার সবার জানা। মেয়েদেরকে আমি সনমান (সম্মান) করি মেয়েরা মায়ের জাত।

এই অভিনেতা বলেন, গতকাল সন্ধ্যায় আপনাদের সাথে আমি একটি ভিডিও শেয়ার করেছিলাম। সেই ভিডিওতে সম্প্রতি ঘটে যাওয়া এবং বেড়ে যাওয়া ধর্ষণের বিরুদ্ধে কিছু কথা বলেছি। এবং নারীরা কী করলে ধর্ষণের স্বীকার হবেন না- সেই বিষয়ে মতামত দিয়েছি। পরব্ররতীতে মেয়েদের ড্রেসের ব্যাপারটি বাদ দিয়ে পুনরায় এডিট করে ফেসবুক এবং ইউটিউব চ্যানেলে দিয়েছি।

আরও পড়ুন:‌ পোশাক নিয়ে মন্তব্যের কারণে অনন্ত জলিলকে বয়কট করলেন শাওন 

অনন্ত জলিল বলেন, আমি একটা ব্যাপারে মর্মাহত। ভিডিওতে ৩ মিনিট ৪৯ সেকেন্ড ধর্ষকদের বিরুদ্ধে বলেছি। যারা পোশাক নিয়ে সমালোচনা করেছেন তাদের চোখে এই – ৩ মিনিট ৪৯ সেকেন্ড এর বক্তব্য চোখে পড়েনি। যেহেতু সমালোচনা করেছেন, তাহলে আমি – ৩ মিনিট ৪৯ সেকেন্ড ধর্ষকের বিরুদ্ধে বক্তব্য দিয়েছি সেগুলো নিয়ে তো এপ্রেশিয়েটও করতে পারতেন। তাহলে কী দাঁড়ালো? নেগেটিভটাই আপনাদের কাছে বড়। এটা আমার সমালোচকদের কাছে প্রশ্ন- আমার মনে এই প্রশ্নের জবাব আপনাদের কাছে পেয়ে যাবো।

সূত্র: কালের কন্ঠ

আর/০৮:১৪/১২ অক্টোবর

Back to top button