জাতীয়

ফেরত পাঠানো ১০৪ বাংলাদেশিকে ক্ষতিপূরণ দেবে ফ্লাই দুবাই

ঢাকা, ১২ অক্টোবর- সংযুক্ত আরব আমিরাত (ইউএই) সরকারের ইমিগ্রেশন পলিসি না মেনেই ১০৪ প্রবাসী বাংলাদেশিকে বোর্ডিং পাশ দিয়ে দুবাই নিয়ে যায় ফ্লাই দুবাই। আর এরপরই সবাইকে বাংলাদেশে ফেরত পাঠায় দুবাই ইমিগ্রেশন পুলিশ।

এমন গাফিলতি করায় ওই প্রবাসী বাংলাদেশিদের ক্ষতিপূরণ দেবে ফ্লাই দুবাই। সবার টিকিটের টাকা ফেরতসহ আনুষঙ্গিক খরচ বাবদ অতিরিক্ত ৩৫০০ টাকা দেবে বিমান সংস্থাটি।

রোববার (১১ অক্টোবর) ফ্লাই দুবাইকে এই ক্ষতিপূরণ দিতে বাধ্য করেন হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের ম্যাজিস্ট্রেট শেখ হাফিজুর রহমান।

ঘটনার বিষয়ে শাহজালাল বিমানবন্দর সূত্র জানায়, গত ৯ অক্টোবর ফ্লাই দুবাইয়ের দুটি ফ্লাইটযোগে ঢাকা থেকে ৫১ জন এবং চট্টগ্রাম থেকে ৫৩ জন যাত্রী দুবাই যায়। তবে তাদেরকে রোববার (১১ অক্টোবর) দুবাই বিমানবন্দর থেকে বাংলাদেশে ফেরত পাঠানো হয়। তাদের দুবাই থেকে সড়কপথে ইউএইর দেশ আল আইন ও আবুধাবিতে যাওয়ার কথা ছিল।

আরও পড়ুন: রাজউকে ঠিকাদারের তাণ্ডব: চরম আতঙ্কে প্রকৌশলীরা

তবে শতাধিক যাত্রী ও এয়ারলাইন্সের সাথে কথা বলে ম্যাজিস্ট্রেট শেখ হাফিজুর রহমান নিশ্চিত হন, ফেরত আসার জন্য ফ্লাই দুবাইয়ের গাফিলতি দায়ী। সংযুক্ত আরব আমিরাতের ইমিগ্রেশন পলিসি অনুসরণ করলে এ যাত্রীদের দুবাইগামী ফ্লাইটে বোর্ডিং করানোর কোনো সুযোগ নেই। তবে ফ্লাই দুবাই তাই করেছে।

রোববার ভোগান্তির শিকার যাত্রীদের উপস্থিতিতে শুনানির পর ফ্লাই দুবাই কর্তৃপক্ষ ফেরত আসা মোট ১০৪ জন যাত্রীর প্রত্যেককে আগামী ১৮ অক্টোবরের মধ্যে ক্ষতিপূরণ বাবদ টিকিটের ক্রয়মূল্য এবং অন্যান্য খরচ বাবদ আরও ৩৫০০ টাকা করে প্রদানের লিখিত অঙ্গীকার করেন।

গত ৮ অক্টোবর ফ্লাইট থাকলেও একদিন দেরি করে ৯ অক্টোবর ঢাকা ছাড়ে ফ্লাই দুবাই। দুবাই বিমানবন্দরে পৌঁছার পর অনুমতিপত্র না থাকায় পুলিশ তাদেরকে আটক করে। দুই দিন পর দেশে ফেরত পাঠিয়ে দেয়া হয়। এই প্রবাসীরা ৭৪ ঘণ্টা দুবাই বিমানবন্দরে অবস্থান করেন। এ সময় তাদেরকে খাবারও দেয়া হয়নি।

সূত্র : জাগো নিউজ
এন এইচ, ১২ অক্টোবর

Back to top button