জাতীয়

স্বাস্থ্যসেবা নিয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রীর চাপাবাজি-মিথ্যাচার মানুষকে বিভ্রান্ত করে : রিজভী

ঢাকা, ১০ অক্টোবর- স্বাস্থ্যমন্ত্রীর কড়া সমালোচনা করে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেছেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প যে স্বাস্থ্য সেবা পেয়েছেন, আমরা করোনায় জনগণকে সেই স্বাস্থ্যসেবা দিয়েছি। স্বাস্থ্যমন্ত্রী মনে হয় এটা ‘গঞ্জিকার’ প্রভাবে বলেছেন।

আজ শনিবার দুপুরে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে বাংলাদেশ শিক্ষক সমন্বয় পরিষদের উদ্যোগে আয়োজিত মানববন্ধনে এসব কথা বলেন তিনি।

রিজভী বলেন, সরকারি হিসেবে ৭০১ জন রোগী করোনায় আক্রান্ত হয়ে ঘরের মধ্যে মারা গেছেন। বাড়ি থেকে হাসপাতালে যেতে এ রকম রোগী ৪০ থেকে ৫০ জন মারা গেছেন। ৩ লক্ষ ৭৪ হাজার সংক্রমণ হয়েছে এবং মারা গেছে অসংখ্য জন। এরপর তিনি (স্বাস্থ্যমন্ত্রী) বলেন ট্রাম্প যে সুবিধা পেয়েছেন, যেভাবে চিকিৎসা হচ্ছে বাংলাদেশের জনগণের। এই যে ‘চাপাবাজি’ এই যে মিথ্যাচার, তা মানুষকে বিভ্রান্ত করে।

আরও পড়ুন: নৌকায় ভোট দেয়ায় বিএনপির হাত থেকে অন্তঃসত্ত্বাও রেহাই পায়নি : তথ্যমন্ত্রী

তিনি আরো বলেন, বিশেষজ্ঞরা বলছেন সরকার যে পরিসংখ্যান দিচ্ছেন এবং ডিজি হেলথ সার্ভিসের যে পরিসংখ্যান দিচ্ছেন এর মধ্যে মিল নেই। করোনায় গ্রামের মানুষ হাসপাতালে আসতে পারছে না, ফলে চিকিৎসা না পেয়ে মারা যাচ্ছে রাস্তাঘাটে বাড়ির মধ্যে। এই পরিসংখ্যান কিন্তু সরকারের নেই অথচ এই ‘অপদার্থ’ স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প যে স্বাস্থ্য সেবা পাচ্ছেন দেশের জনগণ সেই চিকিৎসা পাচ্ছেন। এই লোকটাকে কেন টিকিয়ে রেখেছে জানেন? ধনী লোক তো সরকার তার কাছ থেকে অনেক টাকা পয়সা নিয়েছেন। সেটা না হলে এই ধরনের একজন ব্যর্থ ও অকাট মূর্খ লোক স্বাস্থ্যমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করছেন চিন্তাই করা যাবে না।

এ সময় ঢাবি ভিসির সমালোচনা করে তিনি বলেন, নৈতিক স্খলনের জন্য দায়ী বর্তমান এই ভাইস চ্যান্সেলর। ভাইস চ্যান্সেলরকে গলায় গামছা দিয়ে রাস্তায় নামিয়ে আনা দরকার। তা না হলে সু-শিক্ষা থাকবে না। প্রকৃত শিক্ষায় শিক্ষার্থীরা শিক্ষিত হতে পারবে না। সরকারের প্রকৃতভাজন হওয়ার আশায় এই ধরনের একজন ভাইস চ্যান্সেলর নৈতিকতা বিসর্জন দিয়েছেন।

আয়োজক সংগঠনের সভাপতি ও বিএনপির শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক ওবায়দুল ইসলামের সভাপতিত্বে এবং সদস্য সচিব অধ্যাপক সেলিম ভূঁইয়ার সঞ্চালনায় মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, খায়রুল কবির খোকন, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার রিয়াজুল ইসলাম রিজু, সহ-প্রচার সম্পাদক কৃষিবিদ শামীমুর রহমান শামীম, যুবদলের সাধারণ সম্পাদক সুলতান সালাউদ্দিন টুকু, স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল কাদের ভূঁইয়া জুয়েল, ছাত্রদলের সভাপতি ফজলুর রহমান খোকন, সিনিয়র সহ-সভাপতি কাজী রওনুকুল ইসলাম শ্রাবন, সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন শ্যামল, সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আমিনুর রহমান আমিন, স্বেচ্ছাসেবক দলের নেতা মোর্শেদ আলম প্রমুখ।

সূত্র : কালের কণ্ঠ
এন এইচ, ১০ অক্টোবর

Back to top button