জাতীয়

প্রধানমন্ত্রী ময়মনসিংহ যাচ্ছেন আজ, উদ্বোধন করবেন ৭৩ প্রকল্প

ময়মনসিংহ, ১১ মার্চ – দীর্ঘ পাঁচ বছর পর আজ শনিবার ময়মনসিংহ আসছেন প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা। এ সফরে ৭৩টি উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী। এছাড়া ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেবেন ৩০ প্রকল্পের। পাশাপাশি নগরীর সার্কিট হাউজ মাঠের জনসভায় ভাষণ দেবেন তিনি।

ময়মনসিংহের জেলা প্রশাসক মো. মোস্তাফিজার রহমান জানান, শনিবার দুপুর ১টায় প্রধানমন্ত্রী হেলিকপ্টারে ময়মনসিংহ স্টেডিয়াম মাঠে এসে নামবেন। সেখান থেকে সার্কিট হাউজে এসে বিশ্রাম নেওয়ার পর ৭৩টি উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্বোধন এবং ৩০টি প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করবেন প্রধানমন্ত্রী। এ সময় মন্ত্রী, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতা এবং স্থানীয় ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাসহ আওয়ামী লীগ নেতারা উপস্থিত থাকবেন। পরে বেলা ৩টায় সার্কিট হাউজ মাঠে ময়মনসিংহ বিভাগীয় আওয়ামী লীগ আয়োজিত জনসভায় প্রধানমন্ত্রী প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখবেন। প্রধানমন্ত্রীর এ সফরের সব প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে বলেও উল্লেখ করেন জেলা প্রশাসক। পাশাপাশি প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তায় নেওয়া হয়েছে নিছিদ্র নিরাপত্তা ব্যবস্থা।

এদিকে প্রধানমন্ত্রীর এই আগমনকে কেন্দ্র করে আনন্দ আর উচ্ছ্বাসের জোয়ারে ভাসছে গোটা ময়মনসিংহ। প্রধানমন্ত্রীকে শুভেচ্ছা জানাতে ব্যানার, পোস্টার আর ফেস্টুনে ছেয়ে গেছে সার্কিট হাউজ ময়দানের জনসভাস্থলসহ ময়মনসিংহ নগরীর প্রতিটি সড়ক ও পাড়া-মহল্লা। আওয়ামী লীগের নেতাকর্মী ও সমর্থক ছাড়াও নানা শ্রেণি-পেশার মানুষ প্রধানমন্ত্রীকে বরণ করতে অধীর আগ্রহ নিয়ে অপেক্ষা করছেন। জনসভাকে সফল করতে রাত-দিন ব্যস্ত সময় পার করছেন দলের স্থানীয় নেতারাসহ কর্মীরাও।

ময়মনসিংহ মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোহিত উর রহমান শান্ত বলেন, অতীতে কোনো সরকারের আমলে ময়মনসিংহে এমন উন্নয়ন হয়নি। দৃশ্যমান এসব উন্নয়নের ফলেই আগামীতে মানুষ নৌকায় ভোট দেবে।

মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও ময়মনসিংহ সিটি মেয়র ইকরামুল হক টিটু বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালকে ৫০০ শয্যা থেকে বাড়িয়ে এক হাজার শয্যায় উন্নীত করেছেন। ময়মনসিংহকে বিভাগ ও পৌরসভাকে সিটি করপোরেশনে উন্নীতকরণসহ শিক্ষা বোর্ড স্থাপন ও পুরনো ব্রহ্মপুত্র নদ ড্রেজিংয়ের দাবি ছিল ময়মনসিংহবাসীর। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ময়মনসিংহবাসীর এসব দাবিও পূরণ করেছেন। ময়মনসিংহবাসী দৃশ্যমান এসব উন্নয়নের সুফল এখন ভোগ করছে।

যেসব প্রকল্পের উদ্বোধন ও ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন: উদ্বোধনের অপেক্ষায় থাকা উন্নয়ন প্রকল্পগুলোর মধ্যে রয়েছে ময়মনসিংহের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারসংলগ্ন জায়গায় ছবির ভিত্তিতে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ম্যুরাল, ময়মনসিংহ সদরের চরসিরতায় ৫০ শয্যার ডা. মুশফিকুর রহমান শুভ মেমোরিয়াল ইসলামিক মিশন হাসপাতাল, ত্রিশালে এক হাজার আসনের অডিটরিয়াম কাম কমিউনিটি সেন্টার নির্মাণ, ময়মনসিংহ জেলায় ইনস্টিটিউট অব হেলথ টেকনোলজি, গফরগাঁওয়ের চরআলগী ইউনিয়নকে ব্রহ্মপুত্রের ভাঙন থেকে রক্ষায় বেড়িবাঁধ নির্মাণ, সদর উপজেলা পরিষদ নতুন হাসপাতাল নির্মাণ, হালুয়াঘাটে গোরবাকুড়া-কড়ইতলী স্থলবন্দর, জেলা আইনজীবী সমিতির মূল ভবন শহীদ অ্যাডভোকেট নজরুল ইসলাম ভবন ও বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব মহিলা কলেজ উদ্বোধন। এ ছাড়াও কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে দেশরতœ শেখ হাসিনা হল, শেখ রেহানা হল, রোজী জামাল হল ও সরকারি আনন্দ মোহন কলেজে ৫০০ শয্যার পাঁচতলা ছাত্র হোস্টেল নির্মাণ এবং বিদ্যুৎ বিতরণ ব্যবস্থার উন্নয়ন প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্থর স্থাপন।

বিরোধীদলীয় নেতার শুভেচ্ছা: প্রধানমন্ত্রীর ময়মনসিংহে আগমনকে স্বাগত জানিয়ে নগরীর বিভিন্ন সড়কে তোরণ নির্মাণ করেছেন জাতীয় পার্টির প্রধান পৃষ্ঠপোষক ও সংসদে বিরোধীদলীয় নেতা বেগম রওশন এরশাদ। এ ছাড়াও জাতীয় পার্টির বিভিন্ন অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা প্রধানমন্ত্রীকে ময়মনসিংহে স্বাগত জানিয়ে তোরণ, ব্যানার, পোস্টার আর ফেস্টুন সাঁটিয়েছেন। জেলা জাতীয় পার্টির ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মোশাররফ হোসেন বলেন, ‘বেগম রওশন এরশাদ ময়মনসিংহ সদর আসনের সংসদ সদস্য। তাই দেশের প্রধানমন্ত্রীর ময়মনসিংহে আগমন উপলক্ষে আন্তরিকতার বহিঃপ্রকাশস্বরূপ তাকে জাতীয় পার্টির পক্ষ থেকে শুভেচ্ছা জানানো হয়েছে।’

জনসভার মাঠ পরিদর্শনে ওবায়দুল কাদের: গতকাল রাতে প্রধানমন্ত্রীর জনসভাস্থল সার্কিট হাউজ ময়দান পরিদর্শন করেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ও সড়ক পরিবহনমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। এ সময় তিনি সাংবাদিকদের বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ময়মনসিংহের বিভাগীয় সমাবেশে আগামী নির্বাচনের বার্তা দেবেন। আওয়ামী লীগের যে উন্নয়ন তা জনগণের চোখের সামনে আছে। আমরা ডিজিটাল বাংলাদেশ করেছি এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে স্মার্ট বাংলাদেশ করা হবে। সেটাই হবে নির্বাচনের মূল বার্তা।’ এ সময় কৃষিমন্ত্রী আবদুর রাজ্জাক, গৃহায়ন ও গণপূর্ত প্রতিমন্ত্রী শরীফ আহমেদ, সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কেএম খালিদ, আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বাহাউদ্দিন নাছিম, সাংগঠনিক সম্পাদক আহাম্মদ হোসেন ও মির্জা আজমসহ দলের অন্যান্য নেতা উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে ২০১৮ সালের ২ নভেম্বর ময়মনসিংহ এসেছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

সূত্র: দেশ রূপান্তর
আইএ/ ১১ মার্চ ২০২৩

Back to top button