শিক্ষা

বিনামূল্যের পাঠ্যবইয়ের চাহিদা পাঠানোর নির্দেশ

ঢাকা, ০৬ মার্চ – আগামী ২০২৪ শিক্ষাবর্ষে কত সংখ্যক বই ছাপাতে হবে সেই হিসাব সংগ্রহ করে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছে জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ড (এনসিটিবি)। নির্ধারিত সার্ভারে (www.textbook.gov.bd/brs) লগইন করে চাহিদা পাঠাতে হবে জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা ও উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তাকে।

৭ মার্চের মধ্যে জেলা ও উপজেলা বা থানা শিক্ষা অফিস থেকে চাহিদা দাখিল করতে হবে। ৯ মার্চ জেলা ও উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিস থেকে চাহিদা অনুমোদন দিতে হবে। আঞ্চলিক উপ-পরিচালকরা চাহিদা অনুমোদন দেবেন ১২ মার্চ।

পাঠ্যবইয়ের চাহিদা দাখিল শুরু হয়েছে রোববার থেকে। নির্ধারিত দিনের মধ্যে পাঠ্যবইয়ের চাহিদা অনলাইনে ইনপুট করতে মাঠ পর্যায়ের জেলা ও উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তাদের নির্দেশ দিয়েছে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর।

রোববার (৫ মার্চ) এনসিটিবি থেকে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরে পাঠানো চিঠিতে বলা হয়েছে, ২০২৪ শিক্ষাবর্ষে বিভিন্ন স্তরের পাঠ্যপুস্তকের চাহিদা সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে সংগ্রহ করে মাঠ পর্যায় থেকে অনলাইনে দাখিল ও অনুমোদন করে পাঠানোর জন্য জেলা ও উপজেলা বা থানা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তাকে বলা হলো।

জানা গেছে, নির্ধারিত সার্ভারে (www.textbook.gov.bd/brs) পাঠ্যবইয়ের চাহিদা দাখিল করতে হবে। ৫ মার্চ থেকে ৭ মার্চ জেলা ও উপজেলা বা থানা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিস থেকে চাহিদা দাখিল করতে হবে। ৯ মার্চ চাহিদা অনুমোদন দেবেন জেলা ও উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তারা। আর ১২ মার্চ আঞ্চলিক উপ-পরিচালকদের চাহিদা দাখিল করতে হবে।

এনসিটিবি জানিয়েছে, জেলা, উপজেলা বা থানা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিস ছাড়া অন্য কোনো অফিস বা এনসিটিবিতে হার্ডকপি বা অনলাইনে বা ইমেইলে চাহিদার সফটকপি পাঠানোর প্রয়োজন নেই। অতিরিক্ত চাহিদা দেওয়া যাবে না। ২০২৩ সালে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ভর্তি ও শিক্ষার্থীর সংখ্যা ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের পাঠ্যপুস্তকের হিসাব দ্রুত অনলাইনে এনসিটিবিতে পাঠাতে হবে।

সূত্র: জাগো নিউজ
আইএ/ ০৬ মার্চ ২০২৩

Back to top button