সংগীত

সব দোষ নিজের কাঁধে নিয়ে কলকাতাবাসীর কাছে ক্ষমা চাইলেন অরিজিৎ

কলকাতা, ২৩ ফেব্রুয়ারি – অরিজিৎ সিং এর কাজ গান গাওয়া, তিনি গেয়েওছিলেন। সকলে বেশ উপভোগও করেছিল। ব্যস, ল্যাটা চুকে যেত এতেই। তবে তিনি সে পথে হাঁটলেন না! কলকাতার মেগা কনসার্টের তিন দিন পর শহরবাসীর কাছে ক্ষমা চাইলেন অরিজিৎ। যেকারণে ক্ষমা চাইলেন যার দায়ভার তার উপর বর্তায় না।

শনিবার (১৮ ফেব্রয়ারি) অরিজিতের কনসার্ট আয়োজিত হয়েছিল কলকাতার অ্যাকোয়াটিকায়। ভিড় সামাল দেয়ার জন্য প্রায় এক কিলোমিটার দূরে ব্যবস্থা করা হয়েছিল গাড়ি পার্কিংয়ের। আয়োজকদের তরফে জানানো হয়েছিল দর্শকদের জন্য ব্যবস্থা করা হবে টোটোর। কিন্তু অনুষ্ঠানে হাজির হয়ে চরম বিড়ম্বনার মধ্যে পড়তে হয় দর্শকদের একটা বড় অংশের। যে পরিমাণ দর্শক হাজির ছিলেন সেই পরিমাণ টোটো ছিল না মোটেও।

দর্শকদের কাছে দুঃখ প্রকাশ করে অরিজিৎ লেখেন, ‘কলকাতা, আমি দুঃখিত এক কিলোমিটার হেঁটে তোমাদের কনসার্টে আসতে হয়েছে। কারণ পর্যাপ্ত টোটো মজুত ছিল না। আমি দুঃখিত অস্বাস্থ্যকর পরিবেশ ও মশার কামড় সহ্য করতে হয়েছে তোমাদের।’

এখানেই থামেননি তিনি। আরও লেখেন, ‘আমি দুঃখিত কিছু স্বেচ্ছাসেবক তোমাদের অনেকের সঙ্গে খারাপ ব্যবহার করেছে। আমি দুঃখিত অনেকেই সময় মতো ওই ‘হ্যান্ডব্যান্ড’-এর কারণে ভিতরে আসতে পারনি। তা সত্ত্বেও তোমরা আমায় ভালবাসা দিয়েছ, আমি ভাষাহীন। আমার হৃদয়জোড়া ভালবাসা। আমি চেষ্টা করব পরের বার এর থেকেও ভাল অভিজ্ঞতা যাতে তোমাদের দিতে পারি। সবাই খুব ভাল থেকো।’

ওই দিন কনসার্টের পর দর্শকের তরফে আয়োজকদের বিষয়ে একাধিক অভিযোগ এসেছিল। অরিজিৎ তার পোস্টে সেই সব কয়টি অসুবিধের কথাই উল্লেখ করেছেন।

আয়োজকদের ভুলকে চোখে আঙুল দিয়ে তুলে ধরে ভালবাসা জানিয়েছেন দর্শকদের। আর তাতেই মন জিতে নিয়েছেন শহরবাসীর। তার সাধারণ জীবনযাপনে এমনিতেই তিনি ঘরের ছেলে। এরই পাশাপাশি দর্শকদের জন্য তার এই খেয়াল রাখায় মুগ্ধ কলকাতা বাসী।

অরিজিৎ সিং এর পোস্টের নিচে মন্তব্য, ‘এভাবে ভাবতে কাউকে কোনো দিন দেখিনি। এই জন্যই তুমি অরিজিৎ। সবার থেকে খানিক আলাদাই।’

আইএ/ ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩

Back to top button