ইউরোপ

অবসরের বয়সসীমা বৃদ্ধির প্রস্তাবের প্রতিবাদে বিক্ষোভে উত্তাল গোটা ফ্রান্স

প্যারিস, ২০ জানুয়ারি – অবসরের বয়সসীমা ৬২ বছর থেকে ৬৪ বছর করার প্রস্তাবের প্রতিবাদে গোটা ফ্রান্স জুড়ে আন্দোলন ও বিক্ষোভ করেছে দেশটির আটটি শ্রমিক ইউনিয়ন। এদের সঙ্গে যোগ দিয়েছিল সাধারণ ফরাসি থেকে শুরু করে স্কুল কলেজের শিক্ষার্থীরাও।

বৃহস্পতিবারের এই আন্দোলনে আশির দশকের পর সব চেয়ে বেশি লোকের অংশগ্রহণ ছিল। আন্দোলনকারীদের মতে, গোটা ফ্রান্সে প্রায় দুই মিলিয়ন মানুষ এই আন্দোলনে অংশগ্রহণ করে। শুধু রাজধানী প্যারিসেই ছিল প্রায় চার লাখ মানুষের উপস্থিতি। অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা এড়াতে প্যারিসের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ স্থানে বিপুল সংখ্যক পুলিশ মোতায়েন করা হয়। প্যারিসের ঐতিহাসিক রিপাবলিক চত্বর থেকে শুরু করে বাস্তিল হয়ে নেশন পর্যন্ত পুরো এলাকা ছিল আন্দোলনকারীদের দখলে। পুলিশ ত্রিশ জনকে গ্ৰেপ্তার করেছে।

এদিন দূরপাল্লার বাস-ট্রেনসহ গোটা ফ্রান্সের প্রায় সব ধরনের গণপরিবহন বন্ধ ছিল। এছাড়া বাতিল করা হয় একশোর বেশি ফ্লাইট।

রাজধানী প্যারিস ছাড়াও মার্সাই, লিও, লিল, তুলুজ, নিস্সহ ফ্রান্সের বড় শহরগুলোতেও একযোগে আন্দোলন ও বিক্ষোভ হয়েছে। এককথায় এদিন গোটা ফ্রান্সের জনজীবন স্থবির হয়ে পড়ে।

বিশ্লেষকদের মতে বৃহস্পতিবারের আন্দোলন ম্যক্রোন প্রশাসনের জন্য বড় ধরনের ধাক্কা।

উল্লেখ্য, গত ১০ জানুয়ারি ফ্রান্সের প্রধানমন্ত্রী এলিজাবেথ বর্ন জাতীয় সংসদে অবসরের বয়সসীমা বৃদ্ধির প্রস্তাব উত্থাপন করার পরিপ্রেক্ষিতে আটটি শ্রমিক ইউনিয়ন ঐক্যবদ্ধভাবে এই আন্দোলনের ডাক দেয়।

সূত্র: ঢাকাটাইমস
আইএ/ ২০ জানুয়ারি ২০২৩

Back to top button