জাতীয়

বাংলাদেশের রাজনীতি ও নির্বাচন নিয়ে লু’র সঙ্গে যে কথা হলো স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর

ঢাকা, ১৫ জানুয়ারি – দুই দিনের সফরে বাংলাদেশে এসেছেন যুক্তরাষ্ট্রের দক্ষিণ ও মধ্য এশিয়া বিষয়ক সহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডোনাল্ড লু। তার সফরের বিভিন্ন আলোচনায় বাংলাদেশের রাজনীতি ও আগামী জাতীয় নির্বাচন প্রসঙ্গ এসেছে।

রোববার পররাষ্ট্রমন্ত্রী, প্রতিমন্ত্রী ও পররাষ্ট্র সচিবের সঙ্গে বৈঠকের পর আইনমন্ত্রী ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকেও ওই প্রসঙ্গ আসে।

দুপুরে ফরেন সার্ভিস একাডেমিতে মধ্যাহ্নভোজের সময় রাজনীতি ও নির্বাচন নিয়ে ডোনাল্ড লু’র সঙ্গে আলোচনা হয়েছে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, তিনি (লু) কিছু জানতে চেয়েছেন। ১০ ডিসেম্বর যে আমরা শান্তিপূর্ণভাবে তাদের (বিএনপিকে সমাবেশ) ব্যবস্থা করে দিয়েছি, এজন্য তারা খুশি হয়েছেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, তারা বলেছেন, সবারই রাজনীতি করবার অধিকার আছে। আমরা বলেছি, আমরা সেটা মানি, সেজন্য তারা শান্তিপূর্ণ সমাবেশ করছেন, তারা অবস্থান নিচ্ছেন, সেগুলোতে আমাদের কোনো বাধা নাই। তবে জনগণের সম্পত্তি নষ্ট ও ‘সংঘাত’ করলেই শুধু সরকার ব্যবস্থা নেয় বলে যুক্তরাষ্ট্রকে জানানো হয়েছে।

‘আমরা শুধু তারা যদি পাবলিক প্রপার্টি নষ্ট করে, ফায়ার ওপেন করে কিংবা রাস্তাঘাট বন্ধ করে তখন আমরা তাদের নিষেধ করি। তাছাড়া তারা মুক্ত। তারা রাজনৈতিক দল, তাদের মতামত প্রকাশ করতে পারে এবং ১০ তারিখেও করেছে, কিছুদিন আগেও করেছে এবং সবার জন্যই এটা উন্মুক্ত আছে, আমরা কাউকে বাধা দিচ্ছি না।’

আগামী জাতীয় নির্বাচন নিয়ে লু’র সঙ্গে কী আলোচনা হয়েছে- জানতে চাইলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, নির্বাচনের কথা আমরা আগেই বলে দিয়েছি যে, আমাদের প্রধানমন্ত্রী চাচ্ছেন একটি সুষ্ঠু নির্বাচন হওয়ার জন্য, সেজন্য আমাদের প্রধানমন্ত্রী কাজ করছেন। আমাদের প্রধানমন্ত্রী কাউকে বাধা দিচ্ছেন না তাদের মতামত প্রকাশ করার জন্য।

‘এটা তিন মাস আগে সমস্ত নিরাপত্তা বাহিনী, সমস্ত কিছু নির্বাচন কমিশনের কাছে চলে যাবে। সবকিছু নিয়ন্ত্রণ করবেন তিনি। আমরা তার আগপর্যন্ত যাতে পিসফুল পরিবেশ থাকে, সেটা আমাদের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আমাদের নির্দেশনা দিয়েছেন এবং আমরা সে অনুযায়ী কাজ করছি।’

সূত্র: যুগান্তর
আইএ/ ১৫ জানুয়ারি ২০২৩

Back to top button