দক্ষিণ এশিয়া

ভর্তুকির আটা নিতে হুড়োহুড়ি, অগত্যা নর্দমায় গড়ালো কয়েকজন

ইসলামাবাদ, ১৫ জানুয়ারি – পাকিস্তানের সংকট দিন দিন আরও প্রকট আকার ধারণ করছে। দেশটির বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ আরও কমে মাত্র ৪৩০ কোটি মার্কিন ডলারে দাঁড়িয়েছে। খাদ্য সংকট তীব্র হচ্ছে। বেড়েছে নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যের দাম। ফলে কিছুটা ভর্তুকি দিচ্ছে সরকার। সেই সহায়তা নিতে গিয়ে বিড়ম্বনারও যেন শেষ নেই।

সম্প্রতি পাকিস্তানের একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে টুইটারে। এতে দেখা যায়, আটা বিতরণ করছে স্থানীয় প্রশাসন। সেই আটা নিতে গিয়ে হুড়োহুড়ি লেগে যায়। এক পর্যায় পাশের নর্দমায় গড়াগড়ি খান কয়েকজন।

অর্থনৈতিক মন্দায় টালমাটাল দেশটির করাচি শহরে আটা ময়দার দাম রেকর্ড পরিমাণে বৃদ্ধি পেয়েছে। পাকিস্তানের খাইবার পাখতুনওয়া, সিন্ধু ও বালুচিস্তান প্রদেশের বেশ কয়েকটি এলাকায় গমের ঘাটতি দেখা দিয়েছে। সরকারের দেওয়া খাদ্যশস্য সংগ্রহ করতে গিয়ে বেশ কয়েকজন পদপিষ্ট হন বলেও খবর পাওয়া যায়।

দক্ষিণ এশিয়ার দেশটি দীর্ঘদিন ধরে আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলে (আইএমএফ) আটকে থাকা ১১৭ কোটি ডলার ঋণ পাওয়ার চেষ্টা করছে। এছাড়া ঘনিষ্ঠ মিত্রদের কাছ থেকেও তাৎক্ষণিকভাবে আর্থিক সহায়তা বাড়ানোর চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে তারা।

সম্প্রতি পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ শরীফ সংযুক্ত আরব আমিরাত সফরে যান। এসময় উপসাগরীয় দেশটি ১০০ কোটি ডলার অতিরিক্ত ঋণের পাশাপাশি ২০০ কোটি ডলার ঋণ ছাড়ের প্রতিশ্রুতি দিয়েছে।

চলতি মাসে সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন পাকিস্তানের নতুন সেনাপ্রধান জেনারেল সৈয়দ অসিম মুনির। তাদের বৈঠকের একদিন পরেই পাকিস্তানে বিনিয়োগ-সহায়তা বাড়ানোর নির্দেশ দেন সৌদি যুবরাজ। দেশটিতে দীর্ঘদিন ধরে চলা আর্থিক দুর্দশা এবং সাম্প্রতিক বন্যার ক্ষয়ক্ষতি লাঘবে এ পদক্ষেপ নিচ্ছে পুরোনো মিত্র সৌদি আরব।

পাকিস্তানে অর্থনৈতিক সংকট শুরু হয়েছে কয়েক বছর আগেই। দেশটিতে রাজনৈতিক গোলযোগ লেগেই আছে। প্রায় সময় ঘটছে হামলার ঘটনা। এছাড়া প্রাকৃতিক দুর্যোগ বন্যার কবলে পড়ে বহু মানুষের ক্ষয়ক্ষতি হয়।

যদিও এই ভিডিওর সত্যতা যাচাই করা সম্ভব হয়নি।

সূত্র: জাগোনিউজ
আইএ/ ১৫ জানুয়ারি ২০২৩

Back to top button