ইউরোপ

উপ-প্রধানমন্ত্রীকে কেন প্রকাশ্যে ধমকালেন পুতিন?

মস্কো, ১২ জানুয়ারি – উপ-প্রধানমন্ত্রী দেনিস মানতুরোভকে সবার সামনে ধমকেছেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। নতুন প্লেন কেনা ও তৈরি বিলম্বের ঘটনায় সহকর্মীর ওপর চটে যান রুশ প্রধান।

বিজনেস ইনসাইডারের খবরে বলা হয়েছে, বুধবার (১০ জানুয়ারি) এক ভার্চুয়ালি বৈঠকে আলোচনার সময় মেজাজ হারিয়ে ফেলেন প্রেসিডেন্ট পুতিন। এ সময় ধমকে উঠে উপ-প্রধানমন্ত্রী দেনিস মানতুরোভকে কয়েকটি প্রশ্ন করেন তিনি।

প্রশ্নগুলো ছিল নতুন প্লেন কেনা ও তৈরি নিয়ে। দেনিস মানতুরোভ রাশিয়ার বাণিজ্যমন্ত্রী হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেন।

বৈঠকে এ সংক্রান্ত ব্যাপারে আলোচনা করছিলেন দেনিস মানতুরোভ। এ সময় রেগে গিয়ে পুতিন তাকে বলেন, অনেক দেরি হচ্ছে। এটি অনেক সময় নিচ্ছে। আপনি কি ভুল বোঝাচ্ছেন? কখন বিমান কেনার চুক্তি স্বাক্ষরিত হবে?

এ ঘটনার একটি ভিডিও প্রকাশ করেছে রুশ বার্তাসংস্থা তাস।

পরে নিজেকে সামলে নেন তিনি। এ সময় অর্থনৈতিক পরিস্থিতি সচল রাখায় অন্যান্য মন্ত্রীরা তাকে ধন্যবাদ দেন। আলোচনা আবার শুরু হলেও দেনিস কথা বলার সময় বার বার তাকে থামিয়ে দিতে দেখা যায় পুতিনকে। প্লেন কেনা নিয়েই তিনি কথা বলেন।

দেনিসকে পুতিন বলেন, ৭০০ প্লেনের সঙ্গে হেলিকপ্টার নিয়ে প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে কাজ করতে হবে। এখনও কিছু কিছু প্রতিষ্ঠান প্লেন নির্মাণের অর্ডার পায়নি।

পরে দেনিস তাকে বোঝাতে সক্ষম হন, তার মন্ত্রণালয় সেন্ট পিটার্সবার্গে হেলিকপ্টার নির্মাণের বিষয়ে কাজ করছে। আগে এসব হেলিকপ্টার ইউক্রেনে তৈরি করা হতো। এখনকার পরিস্থিতি যেহেতু ভিন্ন, তাই দ্রুত এ কাজ শেষ করতে সবার সঙ্গে তিনি কাজ করবেন।

কিন্তু তার জবাবে পুতিন আশ্বস্ত হতে পারেনি। পরে উপ-প্রধানমন্ত্রীকে তিনি আরও দ্রুত কাজ করতে নির্দেশ দেন। রুশ প্রেসিডেন্ট বলেন, এটি এক মাসের মধ্যে করুন। আমরা কি ধরনের পরিস্থিতিতে আছি আপনি বুঝতে পারছেন না? এক মাসের মধ্যে এটি সম্পন্ন করতে হবে।

পুতিনের একজন ঘনিষ্ঠ ব্যক্তি হিসেবে উপ-প্রধানমন্ত্রী দেনিস মানতুরোভকে প্রেসিডেন্টের সঙ্গে একাধিকবার বিভিন্ন সফরে যেতে দেখা গেছে।

সূত্র: বাংলানিউজ
আইএ/ ১২ জানুয়ারি ২০২৩

Back to top button